বাবার শেষকৃত্যের দিন মায়ের মৃত্যু, কী হবে দুই নবজাতকের?

0 26

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের ওয়েস্ট পাম বিচ এলাকায় গত ১১ জুলাই দুর্বৃত্তের গুলিতে নিহত হন জেভান সুকু। এর ঠিক তিনদিন পর তাঁর স্ত্রী স্টিফেনি ক্যাসেরেসের কোলজুড়ে আসে যমজ সন্তান। বাবার আদর বঞ্চিত এই দুই নবজাতকের মায়ের কোলেও ঠাঁই হয়নি বেশি দিন। কারণ বাবা সুকোর শেষকৃত্যের দিনই মৃত্যু হয় মা স্টিফেনির।

দুই নবজাতক ছাড়াও স্টিফেনি-সুকু জুটির কেইলানি নামের দুই বছর বয়সী এক কন্যা সন্তানও রয়েছে। বাবা হারা ওই তিন শিশুকে নিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েন স্টিফেনি। যমজ সন্তান জন্মের একদিন পর ফেসবুকে তিনি লেখেন, ‘আমি সত্যিই জানি না, একজন বাবা কীভাবে তিন সন্তান রেখে চলে যেতে পারে। দুই সন্তান তো তাদের বাবাকে দেখলই না।’

স্টিফেনি আরো লেখেন, ‘আমার সন্তানরা এটা প্রত্যাশা করেনি। আমি শক্ত হতে চেষ্টা করছি। তবে এটা মোটেই সহজ হবে না। এই যুদ্ধটা আমাকে আজীবন করে যেতে হবে।’

তবে তিন সন্তানকে নিয়ে যুদ্ধে নামার আগেই নিয়তির কাছে হার মানলেন স্টিফেনি। জীবাণু সংক্রমণে আক্রান্ত হয়ে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ১০ দিন থাকার পর স্থানীয় সময় গত বুধবার মারা যান তিনি। সেদিনই শেষকৃত্য হয় সুকুর।

মা-বাবার মৃত্যুর পর ‘ফান্ডরেইজিং পেজ’ নামের একটি প্রতিষ্ঠান ওই তিন শিশুর দায়িত্ব নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। এদিকে, এখন পর্যন্ত সন্ধান পায়নি তাদের বাবা সুকুর হত্যাকারীদের।

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.