সব রোহিঙ্গাকে ফিরিয়ে নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন সু চি: ব্রিটিশ মন্ত্রী

0

ব্রিটিশ প্রতিমন্ত্রী মার্ক ফিল্ড বলেছেন, ‘তিনি (সু চি) আমাকে আশ্বস্ত করেছেন, তিনি বাংলাদেশ থেকে সব শরণার্থীকে বার্মায় ফিরিয়ে নিতে চান।’ ২৮ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার ঢাকায় এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান ব্রিটিশ প্রতিমন্ত্রী।

মার্ক ফিল্ড সম্প্রতি রাজধানী নেপিডোতে সু চি’র সঙ্গে সাক্ষাত করেছেন। মার্ক ফিল্ড বলেন, আমি নিজের চোখে ভয়াবহ অবস্থা দেখেছি। এই সংকট সমাধানে পর্দার অন্তরালে অনেক কূটনৈতিক প্রচেষ্টা চলছে।

তিনি বলেন, রোহিঙ্গা সমস্যা এখন আর একটি আঞ্চলিক ইস্যু নয়। সমস্যা সমাধানে আমরা সব ধরনের কূটনৈতিক প্রচেষ্টা চালাব।

ব্রিটিশ প্রতিমন্ত্রী জানান, সু চি একটি কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে আছেন এবং তিনি আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ চাপের মধ্যে একটি ‘সঠিক পথ’ বের করার চেষ্টা করছেন। সু চি এখনো মিয়ানমারের চলমান গণতন্ত্রের জন্য সেরা আশা। তিনি ব্যর্থ হলে মিয়ানমার আবারও সামরিক একনায়কত্বের দিকে ফিরে যাওয়া ঝুঁকি আছে।

এছাড়া বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কক্সবাজারের কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে ঢাকায় নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাট জানিয়েছেন, রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফেরত পাঠাতে কাজ করছে যুক্তরাষ্ট্র।

আর জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের ১৫ সদস্য রাষ্ট্রের বৈঠকে সংস্থাটির মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বলেছেন, ‘রাখাইনে সহিংসতা রোহিঙ্গাদের খুব দ্রুতই বিশ্বের বড় উদ্বাস্তু জনগোষ্ঠীতে পরিণত করেছে, যা মানবিকতা ও মানবাধিকারের জন্য ‘দুঃস্বপ্নের’ জন্ম দিয়েছে।’

উল্লেখ্য, গত ১১ আগস্টে রাখাইন রাজ্যে সেনা মোতায়েনের পর ২৫ আগস্ট রোহিঙ্গা ‘জাতিগত নিধন’ শুরু করে। ঘটনায় প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশে পালিয়ে রোহিঙ্গার সংখ্যা ৪ লাখ ৮০ হাজারে গিয়ে পৌঁছেছে বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সাহায্য সংস্থাগুলোর সমন্বয় কমিটি।

সারা বিশ্বে ইউএনএইচসিআর কতৃক নিবন্ধিত ১৭.২ মিলিয়ন শরণার্থীর ৩০% এখন বাংলাদেশে। এরই মধ্যে চলমান রোহিঙ্গা ঢল অব্যাহত থাকলে শরণার্থীর এ সংখ্যা ১০ লাখে পৌঁছাতে পারে বলেও সতর্ক করেছে জাতিসংঘ। এত সংখ্যক শরণার্থীর দায়িত্ব তাদের পক্ষেও নেওয়া সম্ভব নয় বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ।

Share.

Leave A Reply