‘বিতর্কিত’গণভোটের রায়ে স্পেন কর্তৃপক্ষ র‌্যালির জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে

0
5

আন্তর্জাতিক ডেস্ক    ::   কাতালোনিয়ার স্বাধীনতার বিপক্ষে এবং ঐক্যবদ্ধ স্পেনের পক্ষে র‌্যালি প্রত্যাশা করছে স্পেন সরকার। কাতালোনিয়ার স্বাধীনতার পক্ষে রোববার ‘বিতর্কিত’ গণভোটের রায়ের পর স্পেন কর্তৃপক্ষ এমন র‌্যালির জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে।

স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদ ও এর আশপাশের শহরগুলোতে মিছিল ও র‌্যালি পরিকল্পনা করা হয়েছে। একই রকম র‌্যালি সমর্থকদের কাতালোনিয়ার রাজধানী বার্সেলোনাতেও করার আহ্বান জানানো হয়েছে। শনিবার সকালে বিবিসি অনলাইন এ খবর জানায়।

এদিকে, কাতালোনিয়ার গণভোট বন্ধ করতে পুলিশের হস্তক্ষেপের সময় হতাহতের প্রতি ক্ষমা চেয়েছেন স্পেন সরকারের কাতালোনিয়া প্রতিনিধি। তবে স্পেনপন্থী রাজনীতিবিদ এনরিক মিলো ‘অবৈধ’ গণভোটের জন্য কাতালান সরকারকে দায়ী করেছেন।

গণভোট চলার সময় সহিংসতার ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে এনরিক মিলো বলেন, তিনি কোনো সাহায্য করতে পারতেন না, কিন্তু গণভোটে হস্তক্ষেপের জন্য তিনি দুঃখিত ও ক্ষমাপ্রার্থী। অপরদিকে, কাতালান পররাষ্ট্রবিষয়ক প্রধান রাউল রোমিভা বিবিসিকে বলেন, সংসদে তার সরকার স্বাধীনতা বিতর্কে অগ্রসর হবে।

এ বিষয়ে সংসদ আলোচনা করবে, বৈঠক করবে। তিনি জানান, স্পেন সরকার প্রতিটি চেষ্টা ঠেকানো হয়েছে। তারা শুধু বিক্ষোভই নয়, স্পেনের প্রতিটি পদক্ষেপের পাল্টা জবাব দিয়েছেন।এছাড়া কাতালোনিয়ার স্বাধীনতা প্রতিহত করতে সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন স্পেনের সর্বোচ্চ আদালত।

এরই মধ্যে আদালতটি কাতালোনিয়ার আঞ্চলিক সংসদ পরিকল্পনার বৈঠক স্থগিত করে দিয়েছেন। একই সঙ্গে গণভোটে স্বাধীনতার পক্ষে রায় পাওয়া কাতালোনিয়ার প্রেসিডেন্ট কারলেস পিউগডিমন্টের প্রত্যাশিত স্বাধীনতার ঘোষণা নসাতের চেষ্টা করছে স্পেন।

গত ১ অক্টোবর পুলিশের বাধার মুখেই কাতালোনিয়ার স্বাধীনতার প্রশ্নে গণভোট অনুষ্ঠিত হয়। স্প্যানিশ সাংবিধানিক আদালতের অবৈধ ঘোষণা করা এই গণভোট থামানোর চেষ্টা করা হলেও শেষ পর্যন্ত গণভোটে কাতালোনিয়া স্বাধীনতার পক্ষে রায় পায়। গণভোটের দিন পুলিশি বাধার মুখে সহিংসতার ঘটনায় প্রায় ১০০ মানুষ আহত হন।

সিটিজিনিউজ / এসএ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here