কারাগারে রাম রহিমের ওজন হ্রাস পেয়েছে

0 34

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আন্তর্জাতিক ডেস্ক   ::   ভারতের হরিয়ানা রাজ্যে দুই নারীভক্তকে ধর্ষণের দায়ে কারাবাস শুরুর পর থেকেই ঠিকমতো ঘুম হচ্ছিল না ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ডেরা সাচ্চা সৌদার প্রধান গুরমিত রাম রহিম সিংয়ের।

কারাগারে গিয়ে অন্য সাধারণ কয়েদিদের মতো পরিশ্রমও করতে হয়েছে তাঁকে। এসব মিলে গত ৪০ দিনে আলোচিত এই ধর্মগুরুর ওজন কমেছে ছয় কেজি।

ভারতের হরিয়ানা রাজ্যের রোহতক কারাগার সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। ভক্তদের ধর্ষণের দায়ে গত ২৫ আগস্ট রাম রহিমকে দোষী সাব্যস্ত করে ভারতের কেন্দ্রীয় তদন্ত ব্যুরো সিবিআইর একটি বিশেষ আদালত।

পরে ২৮ আগস্ট সাজা ঘোষণার পর থেকে তাঁকে রাখা হয় হরিয়ানার রোহতক জেলার সোনারিয়া কারাগারে। কারা সূত্রে জানা যায়, আগস্টে বন্দি হওয়ার সময় রাম রহিমের ওজন ছিল ৯০ কেজি। এখন সেই ওজন এসে দাঁড়িয়েছে ৮৪ কেজিতে।

এই ওজন কমার নেপথ্যের কারণ হিসেবে দীর্ঘদিনের বিলাসবহুল জীবন পরিত্যাগকে দেখছেন কেউ কেউ। কারা সূত্রে আরো জানায়, নিজের ডেরায় বসে নিয়মিতভাবে যেসব এনার্জি ড্রিংক পান করতেন রাম রহিম, কারাগারে তা মিলছে না। এমনকি বিদেশ থেকে তাঁর জন্য যে উন্নতমানের খাবার পানি আসত, তা-ও তিনি পাচ্ছেন না।

কারাগারের অন্য কয়েদিদের মতোই পানি পান করতে হচ্ছে তাঁকে। এ ছাড়া কারা কর্তৃপক্ষের বরাদ্দকৃত চাষের জমিতেও প্রতিদিন কাজ করতে হচ্ছে রাম রহিমকে।

অন্য বন্দিদের মতো তিনি শাকসবজি চাষ করছেন। ৫০ বছর বয়সী রাম রহিমের আগে থেকেই উচ্চ রক্তচাপ ও ডায়াবেটিস ছিল। তাই উচ্চমাত্রার ওষুধ সেবন করতে হতো তাঁকে। তবে বর্তমানে ওজন কমে যাওয়ায় ওষুধের পরিমাণ কমিয়ে দিয়েছেন চিকিৎসকরা।
সিটিজিনিউজ / এসএ

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.