দশ ট্রাক অস্ত্র মামলায় দুই জনের আইনজীবি নিয়োগেদানে নির্দেশ

0 20

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

নিউজ ডেস্ক   ::   বহুল আলোচিত ১০ ট্রাক অস্ত্র আটকের ঘটনায় করা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ভারতের বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন উলফার সামরিক কমান্ডার পরেশ বড়ূয়া ও নুরুল আমিনের আপিল শুনানির জন্য সরকারকে আইনজীবী নিয়োগ দিতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। আগামী ৭ দিনের মধ্যে আইন মন্ত্রণালয়ের সলিসিটর কার্যালয়কে এই নিয়োগ সম্পন্ন করতে বলা হয়েছে।

বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম ও বিচারপতি মো. জাহাঙ্গীর হোসেন সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ রোববার এ আদেশ দেন। আসামিপক্ষে কোনো আইনজীবী না থাকায় বিধি অনুযায়ী রাষ্ট্র নিযুক্ত আইনজীবী নিয়োগের এই নির্দেশ দেওয়া হয়।

মামলার বিবরণে জানা যায়, বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে ২০০৪ সালের ১ এপ্রিল চট্টগ্রামের সিইউএফএল ঘাট থেকে ১০ ট্রাক ভর্তি অস্ত্রের চালান আটক করা হয়। এ নিয়ে কর্ণফুলী থানায় ১৮৭৮ সালের অস্ত্র আইন ও ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনে চোরাচালানের অভিযোগ এনে দুটি মামলা হয়।

এর পর ২০১৪ সালের ৩০ জানুয়ারি চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ আদালত এবং বিশেষ ট্রাইব্যুনাল-১-এর বিচারক এস এম মজিবুর রহমান দুটি মামলার পৃথক রায় ঘোষণা করেন। দুটি মামলার মধ্যে একটিতে জামায়াতে ইসলামীর আমির মতিউর রহমান নিজামী (যুদ্ধাপরাধ মামলায় মৃত্যুদণ্ড কার্যকর), সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর, উলফার সামরিক কমান্ডার পরেশ বড়ূয়া এবং দুটি গোয়েন্দা সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ ১৪ জনকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়।

এর পর একই বছরের ৪ ফেব্রুয়ারি চোরাচালান মামলার ২৬০ পৃষ্ঠা এবং অস্ত্র আটক মামলায় ২৫৪ পৃষ্ঠার পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হয়। পরে এ মামলার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের আপিল ও ডেথ রেফারেন্স শুনানির জন্য হাইকোর্টে আসে।
সিটিজিনিউজ / এসএ

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.