‘দেশের প্রাণ চট্টগ্রাম’

0

হাকিম মোল্লা: ‘চট্টগ্রামকে দেশের প্রাণ ভাববার সময় এসেছে তা আজ রেডিসনের মেজবান হল রুমে এসে বুঝলাম।’

বিয়ের অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে রেডিসনে তিন দিন ব্যাপী ওয়েডিং এক্সপো-১৭ এর সমাপনি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনি উপরোক্ত মন্তব্য করেন।

যোগ করে হাসনি আরও বলেন, এই ধরনের আয়োজন জঙ্গিবাদকে রুখে দিবে। দেশের অসাম্প্রদায়িক ভাবমূর্তিকে উজ্জল করবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, রেডিসন ব্লু বে ভিউ’র সেলস এন্ড মার্কেটিং বিভাগের পরিচালক ফারহানুল কবীর চৌধুরী।

ফারহানুল কবীর জানান, রেডিসন কর্তৃপক্ষ ২০১৬ সালের ধারাবাহিকতায় এবারও সফল ভাবে ওয়েডিং এক্সপো সম্পন্ন করতে সক্ষম হয়েছে। তিন দিনের এক্সপোতে প্রায় ১০ হাজারেরও বেশি দর্শক এবং বিয়ে নিয়ে আগ্রহী মানুষ টিকেট কেটে এক্সপোতে এসেছে। এক্সপোতে অংশগ্রহনকারীরাও বিয়ে আয়োজনে তাদের বিভিন্ন সেবা সম্পর্কে আগত দর্শনার্থীদের কাছে তুলে ধরতে সক্ষম হয়েছে।

বিয়ের আয়োজনকে পরিপূর্ণভাবে ফুটিয়ে তোলার নানা অনুষঙ্গ নিয়ে পাঁচ তারকা হোটেল রেডিসন ব্লু বে ভিউ’র বল রুমে জমকালো এ এক্সপোর আয়োজন করা হয়। হোটেল রেডিসনের আয়োজনে এবং ভায়োলেট ইন কর্পোরেট-এর সমন্বয়ে এটি ছিলে দ্বিতীয় ওয়েডিং এক্সপো।

গত শনিবার(০৭ অক্টোবর) রাতে রেডিসন ব্লু’র মোহনা হলে বর্ণিল গালা নাইটের মাধ্যমে এই এক্সপো সম্পন্ন হয়। এতে ৫৫টি প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহন করে। অন্যতম অংশগ্রহনকারী প্রতিষ্ঠানসমূহের মধ্যে ছিলো ইউকে ভিত্তিক নামকরা প্রসাধনী সামগ্রি নিয়ে পিউরিয়ান, পিটুপি ফ্যামিলি, কর্ণফুলী লাইটিংস, পিটুপি ফার্নিসার, ওয়েডিং কালারস ফটোগ্রাফি, জায়ান্ট কনসেপ্ট, মেগামার্ট, কিডজি, রেডিসন ব্লু বে ভিউ, স্টোরিটেলার ফটোগ্রাফি ইত্যাদি।

তিন দিনের এক্সপোতে প্রায় ১০ হাজারেরও বেশি দর্শক হয়েছে। এবং বিয়ে নিয়ে আগ্রহী মানুষ প্রয়োজনে তাদের বিভিন্ন সেবা সম্পর্কে আগত দর্শনার্থীদের কাছে তুলে ধরতে সক্ষম হয়েছে।

এদিকে দেশি-বিদেশী এবং আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন ডিজাইনারদের ডিজাইন করা পোষাক প্রদর্শন করা হয় বর্ণিল ফ্যাশন প্যারেডের মাধ্যমে।শনিবার রাতে জমকালো  গালা নাইটের মাধ্যমে ওয়েডিং এক্সপো’র পর্দা নামে রেডিসনে। এই গালা নাইটে বিভিন্ন থিম নির্ভর ফ্যাশন প্যারেডে অংশ নেন ঢাকা থেকে আসা খ্যাতিমান তারকা মডেলরা। আলোচিত এই গালা নাইটের র‌্যাম্প শোতে চট্টগ্রামের একমাত্র মডেল হিসেবে সুযোগ পেয়েছেন আরাফত-উল- হক। এ ছাড়া চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় গিয়ে বর্তমানে ঢাকায় প্রতিষ্ঠিত স্বনামধন্য ও আলোচিত মডেল খালেদ হোসাইন সুজন পুরো ফ্যাশন প্যারেড লিড দেন।

সমাপনি অনুষ্ঠান শুরুর পূর্বে তিন দিনব্যাপী ওয়েডিং এক্সপোতে অংশগ্রহনকারী, স্পন্সর এবং ইভেন্ট পার্টনারদের হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে ক্রেষ্ট তুলে দেওয়া হয়। অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ক্রেষ্ট তুলে দেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্যানের মেয়র চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, হোটেল রেডিসনের সেলস এন্ড মার্কেটিং বিভাগের পরিচালক ফারহানুল কবীর চৌধুরী এবং ভায়োলেট ইন কর্পোরেটের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবিএম খালেদ মাহমুদ।

গালা নাইটে ফ্যাশন প্যারেড ছাড়াও পর পর দুটি গান পরিবেশন করে হল ভর্তি দর্শকদের মাতিয়ে রাখেন পাওয়ার ভয়েস খ্যাত আলোচিত সংগিত শিল্পি তাসনিম আনিকা।

সিটিজিনিউজ/এইচএম

Share.

Leave A Reply