মেসির দাম ৩৭৫ মিলিয়ন পাউন্ড!

0 49

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

ক্রিয়া ডেস্ক  ::  নেইমারের বিক্রির পরই নিশ্চিত হয়ে যায়, টাকা থাকলে যে কোনো দামি ফুটবলারকে দলে ভেড়ানো সম্ভব। বার্সেলোনাকে ২২২ মিলিয়ন ইউরো পরিশোধ করে নেইমারকে বার্সেলোনা থেকে ফ্রান্সে নিয়ে যায় প্যারিস সেইন্ট জার্মেইন।

এর পরই মেসিকে কেনার বিষয়টি উঠে আসে। লিভারপুল কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ বলেছিলেন ৩০০ মিলিয়ন ইউরো হলে মেসিকেও কেনা সম্ভব।

তবে ম্যানচেস্টার সিটি ক্লপের বলা দামটাকেও ছাড়িয়ে গেল। আগামী জানুয়ারির দলবদলে মেসির জন্য ৩৫৭ মিলিয়ন পাউন্ড (প্রায় চার হাজার কোটি টাকা) নিয়ে মাঠে নামবেন পেপ গার্দিওলা।

মেসি চাইলে টাকার অঙ্কটা আরো বাড়তে পারে। এমনই শিহরণজাগানিয়া তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ পত্রিকা ‘দ্য সান’। মেসির সঙ্গে পেপ গার্দিওলার সম্পর্কটা দারুণ ও বেশ পুরোনো। বার্সেলোনায় একই সঙ্গে অনেকদিন কাটিয়েছেন তাঁরা।

এরপর বায়ার্ন মিউনিখ হয়ে ম্যান সিটিতে চলে আসেন গার্দিওলা। গুরু আসলেও শিষ্য মেসি থেকে যান কাতালান ক্লাবটিতে। মেসিকে অনেকবারই ইতিহাদে আনতে চেয়েছে সিটিজেনরা।

তবে কোনোবারই আলোচনার টেবিলে বসেনি বার্সেলোনা। তবে এবার টাকার বস্তা নিয়ে নামছে ম্যান সিটি। প্রায় চার হাজার কোটি টাকা নিয়ে আলোচনা শুরু করবে দলটি।

মেসি যদি সত্যিই ম্যান সিটিতে চলে আসেন তাহলে তিনিই হবেন এই গ্রহের সবচেয়ে দামি ফুটবলার। নতুন মৌসুমে ২২২ মিলিয়ন ইউরো (১৯৫ মিলিয়ন পাউন্ডে নেইমারকে দলে ভেড়ায় পিএসজি।

মেসিকে পেতে নেইমারের দামের পায় দ্বিগুণ (প্রায় ৪০০ মিলিয়ন ইউরো) হেঁকেছে ম্যান সিটি। দেখা যাক, অর্থের ঝনঝনানির কাছে কতক্ষণ টিকতে পারে বার্সেলোনার দম্ভ।
সিটিজিনিউজ / এসএ

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.