রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে মায়ানামারের প্রতি অনুরোধ

0 17

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

নিউজ ডেস্ক    ::  স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, প্রাণভয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে মিয়ানমার সরকারকে বারবার অনুরোধ করা হবে। ফিরে যাওয়ার পর রোহিঙ্গারা যাতে নিরাপদে বসবাস করতে পারে, সে বিষয়েও আলোচনা করা হবে।

আজ রোববার সকালে গাজীপুরের সফিপুরে আনসার-ভিডিপি একাডেমিতে আয়োজিত অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

একাডেমিতে নবনিযুক্ত ৩৪তম বিসিএসে আনসার ক্যাডারের কর্মকর্তাদের মৌলিক প্রশিক্ষণ এবং মাস্টার্স ইন হিউম্যান সিকিউরিটি কোর্সের সমাপনী অনুষ্ঠান হয়। ওই অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন মন্ত্রী।

মিয়ানমারে আসন্ন সফরের বিষয়ে সাংবাদিকদের করা এক প্রশ্নের জবাবে আসাদুজ্জামান খাঁন বলেন, ‘মিয়ানমার সফরকালে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশকারী রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য আমরা সে দেশের সরকারকে বারবার অনুরোধ করব।

ফিরে যাওয়ার পর রোহিঙ্গারা যাতে নিরাপদে বসবাস করতে পারে, সে জন্য তাদের সঙ্গে আলোচনা করব।’ রোহিঙ্গারা মিয়ানমারের নাগরিক নয়, দেশটির সেনাপ্রধানের এমন বক্তব্যের প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘কেউ যদি ইতিহাসকে অস্বীকার করে, সেটি হবে সত্যের অপলাপ।

ঐতিহাসিকভাবে রোহিঙ্গারা মিয়ানমারের নাগরিক।’ মন্ত্রী আরো বলেন, ‘প্রায় তিন মাস আগে মিয়ানমারের সিকিউরিটি অ্যাডভাইজার (নিরাপত্তা উপদেষ্টা) বাংলাদেশে এসেছিলেন।

তিনি আমাকে একটি ইনভাইটেশনের কথা বলছিলেন। তিনি বলছিলেন যে আপনি আসুন, আমরা ওখানে কিছু এমওইউ (সমঝোতা স্মারক) সাইন (সই) করব।

এই এমওইউগুলোই স্বাক্ষরের জন্য আমাকে সেখানে ইনভাইট করেছেন। সেটা তো ছিল একটা প্রেক্ষাপট, কিন্তু এখনকার প্রেক্ষাপট একদম পাল্টে গেছে।’ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেন, স্বাধীনতা পরবর্তী বিভিন্ন ক্রান্তিকাল অতিক্রম করে দেশ আজ উন্নয়নের পথে এগিয়ে চলেছে।

বর্তমান সরকার দেশের উন্নয়নে বদ্ধ পরিকর। বর্তমান সরকারের কর্মতৎপরতায় অর্থনীতি, রাজনীতি, শান্তিশৃঙ্খলা রক্ষা, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, অবকাঠামোসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। বিশেষ করে শান্তির রোল মডেল হিসেবে বিশ্বের মানচিত্রে বাংলাদেশ নতুনরূপে আবির্ভূত হয়েছে।

এসবই সম্ভব হয়েছে ‘মাদার অব হিউম্যানিটি’ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বের গুণে-বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। ১৫ মাসব্যাপী মৌলিক প্রশিক্ষণে ১৯ প্রশিক্ষণার্থী অংশগ্রহণ করেন।

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ক্ষেত্রে দক্ষতার জন্য তিন প্রশিক্ষণার্থীকে পুরস্কার দেওয়া হয়। অনুষ্ঠানে আনসার-ভিডিপির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল শেখ পাশা হাবিব উদ্দিন, অতিরিক্ত মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ নুরুল আলম, উপমহাপরিচালক (প্রশাসন) কর্নেল মহিউদ্দিন মো. জাবেদ, উপমহাপরিচালক (প্রশিক্ষণ) এ কে এম মিজানুর রহমান, উপপরিচালক (অপারেশন) দিলীপ কুমার বিশ্বাস, ভারপ্রাপ্ত কমান্ড্যান্ট (একাডেমি) সাইফুদ্দিন মোহাম্মদ খালেদ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে মন্ত্রী গাজীপুরে কালিয়াকৈরের সফিপুরে আনসার-ভিডিপি একাডেমিতে নবনিযুক্ত ৩৪তম বিসিএস (আনসার) ক্যাডার কর্মকর্তাদের মৌলিক প্রশিক্ষণ এবং মাস্টার্স ইন হিউম্যান সিকউরিটি কোর্সের সমাপণী অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে কুচকাওয়াজের অভিবাদন গ্রহণ ও প্যারেড পরিদর্শন করেন।
সিটিজিনিউজ / এসএ

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.