পাঠক হৃদয়ে কালের কণ্ঠের ইতিবাচক সংবাদ

0
26

হাকিম মোল্লা:  নেতিবাচক নয় পাঠক হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছে কালের কণ্ঠের ইতিবাচক সংবাদ।  দেশের অগ্রযাত্রায় জনমত সৃষ্টির জন্য গণমাধ্যমের যে ভূমিকা রাখা উচিত তা নির্ভীকভাবে পালন করছে কালের কণ্ঠ। গণমাধ্যম পথ দেখালে দেশের রাজনীতি ও অর্থনীতিসহ সার্বিকক্ষেত্রে দেশ এগিয়ে যাবে।

শুক্রবার (২০ অক্টোবর) রাতে নগরীর হোটেল অ্যামব্রোশিয়ায় কালের কণ্ঠ আয়োজিত সুধী সমাবেশে বক্তরা উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।  
সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দীন।
স্বাগত বক্তব্য রাখেন, কালের কণ্ঠের নির্বাহী সম্পাদক মোস্তফা কামাল।  

সুধীজনদের বক্তব্য ও মতামতের আলোকে সমাপনী বক্তব্য দেন কালের কণ্ঠ সম্পাদক ও কথাসাহিত্যিক ইমদাদুল হক মিলন। তিনি বলেন, মানুষের যদি দেশপ্রেম থাকে তাহলে কেউ দুর্নীতি করতে পারে না। আর দুর্নীতিমুক্ত দেশ গড়তেই কাজ করছে কালের কণ্ঠ।

তিনি বলেন, কালের কণ্ঠ দেশের কথা বলে, মানুষের কল্যাণের কথা বলে সর্বোপরি মুক্তিযুদ্ধেও চেতনায় অবিচল।

আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেন, একটি রাষ্ট্র ব্যবস্থাকে সঠিকভাবে পরিচালিত করতে গণমাধ্যমের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের দেশে গণমাধ্যমের যে বিকাশ পৃথিবীর অনেক দেশে তা হয়নি।

সংসদ সদস্য সামসুল হক চৌধুরী বলেন, কালের কণ্ঠ প্রকৃত সত্যটাই তুলে ধরে। মানুষের মনের কথা বলে।

চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল এম খালেদ ইকবাল বলেন, চট্টগ্রাম বন্দর আগের চেয়ে দ্বিগুণ গতিতে চলছে। আপনারা বন্দরের অগ্রগতি সংবাদপত্রের মাধ্যমে তুলে ধরুন।

শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন সিভিল সার্জন ডা. আজিজুর রহমান সিদ্দিকী, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান,  পেশাজীবী নেতা প্রফেসর ডা. একিউএম সিরাজুল ইসলাম, নগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন, সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান,  ব্যবসায়ী নিয়াজ মোর্শেদ এলিট,  খাতুনগঞ্জ ট্রেড অ্যান্ড ইন্ড্রাস্ট্রিজ অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ছগীর আহমেদ,  ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ফোরাম চট্টগ্রাম চ্যাপ্টারের সভাপতি এসএম আবু তৈয়ব, চট্টগ্রাম আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী,  কবি অভিক ওসমান

শুভেচ্ছা জানতে আসেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির উপ-প্রচার আমিনুল ইসলাম আমিন,  ইউএসটিসির উপচার্য অধ্যাপক ডা. প্রভাত চন্দ্র বড়ুয়া, চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পরিবহন মালিক গ্রুপের মহাসচিব বেলায়েত হোসেন বেলাল, শিপিং এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের পরিচালক রফিকুল আনোয়ার, বাংলাদেশ ফ্রেইট ফরোয়ার্ডার অ্যাসোসিয়েশনের পরিচালক খায়রুল আলম সুজন, সম্মিলিত পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদ চট্টগ্রামের সদস্যসচিব ডা. খুরশীদ জামিল চৌধুরী, নগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি খোরশেদ আলম সুজন, বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সদস্য ইব্রাহীম হোসেন বাবুল, নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর, জাতীয় পাটির প্রেসিডিয়াম সদস্য সোয়াইমান আলম শেঠ, বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের অধিনায়ক মামুনুল ইসলাম, চট্টগ্রাম জুনিয়র চেম্বার অব কর্মাসের প্রেসিডেন্ট গিয়াস উদ্দিন, এলবিয়ন গ্রুপের চেয়ারম্যান ও কালের কণ্ঠের শুভ সংঘের উপদেষ্টা রাইসুল উদ্দিন সৈকত, বারভিডার সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান, কাউন্সিলর হাসান মুরাদ বিপ্লব, চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. মাহবুব হাসান প্রমুখ।

এর আগে বিকেলে চট্টগ্রামের হকার্স নেতা, সংবাদপত্র এজেন্টদের সঙ্গে বৈঠক করেন কালের কণ্ঠ সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন, নির্বাহী সম্পাদক মোস্তফা কামাল। এই সময় উপস্থিত ছিলেন কালের কণ্ঠের নির্বাহী পরিচালক (মার্কেটিং) জেডএম আহমেদ প্রিন্স, উপ-মহাব্যবস্থাপক (সার্কুলেশন) মীর আবুল হাছান।

সিটিজিনিউজ/এইচএম

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here