‘আউলিয়া কেরামের সংস্পর্শে আসলে মানুষ ধন্য হয়’

0 37

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

ওরছে বক্তব্য রাখছেন রাহে ভান্ডার দরবারের সাজ্জাদানশীন ছৈয়দ জাফর ছাদেক শাহ।

নিজস্ব প্রতিবেদক: আউলিয়া কেরামের মর্তবা মহান আল্লাহর দরবারে অনেক বেশী। তাদের দোয়া আল্লাহর দরবারে কবুল হয়। তাদের সংস্পর্শে আসলে মানুষ হয় ধন্য। বোয়ালখালীর রাহে ভাণ্ডার কধুরখীল দরবার শরীফের প্রতিষ্ঠাতা হযরত মৌলানা মোহাম্মদ ছৈয়দ আব্দুল মালেক শাহ রাহে ভান্ডারের খোশরোজ শরীফ মহাসমারোহে সম্পন্ন হয়েছে।

এ উপলক্ষে গত ২৩ অক্টোবর রাহে ভাণ্ডার কধুরখীল দরবারে বহু ভক্তের সমাগম ঘটে।

রাতে তাদের উদ্দেশ্যে তরিকতের বয়ানকালে দরবারের সাজ্জাদানশীন আল্লামা ছৈয়দ জাফর ছাদেক শাহ একথাগুলো বলেন। তিনি বলেন, অলীদের মধ্যে হযরত আব্দুল মালেক শাহ রাহে ভাণ্ডারী ছিলেন অন্যতম। তিনি ব্যক্তিগত জীবনে সমস্ত লোভ-লালসার উর্ধ্বে ছিলেন। তিনি তাঁর সমস্ত জীবন উম্মতে মুহাম্মদীর খেদমত করে কাটিয়ে দিয়েছেন। ওরছে দিনব্যাপী কর্মসূচির মধ্যে ছিল খতমে কোরান, মাজারে গিলাপ প্রদান, দোয়া মাহফিল। রাতে অছিয়ত ও নসীহত মাহফিল শেষে জিকিরে ছেমা মাহফিল এবং আখেরী মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

সিটিজিনিউজ/এইচএম 

 

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.