সৌদি আরব হবে মধ্যমপন্থী দেশ : সৌদি যুবরাজ

0 27

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আন্তর্জাতিক ডেস্ক   ::  সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান (এমবিএস) বলেছেন, সব ধর্মের কাছে উন্মুক্ত মধ্যমপন্থী ইসলামে ফিরে যাবে তাঁর দেশ। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদে ভবিষ্যৎ বিনিয়োগ উদ্যোগ (এফআইআই) সম্মেলনে এ মন্তব্য করেন এমবিএস খ্যাত যুবরাজ।

সৌদি আরবে বিদেশি বিনিয়োগ টানার আন্তর্জাতিক কর্মসূচি হলো এফআইআই। মোহাম্মদ বিন সালমান বলেন, সৌদি আরব ‘উগ্রপন্থী চিন্তার প্রচারকদের নির্মূল’ করবে। তিনি বলেন, তাঁর দেশ আর আগের অবস্থায় নেই। ‘আমরা আগে যা ছিলাম, সেই অবস্থানে ফিরছি, মধ্যমপন্থী ইসলামের একটি দেশ যা সব ধর্ম ও বিশ্বের কাছে উন্মুক্ত’, বলেন সৌদি রাজসিংহাসনের ৩২ বছর বয়সী উত্তরাধিকারী।

গতকালের এই অনুষ্ঠানে এমবিএস বলেন, সৌদি আরবের তরুণ প্রজন্মের প্রতি তাঁর আস্থা আছে। তাঁরা তেলনির্ভর বিশ্বব্যবস্থা থেকে বেরিয়ে আসতে পারবে। এ সময় তিনি সৌরবিদ্যুতের উপকারিতা নিয়েও কথা বলেন। সালমানের এই বক্তব্যের এক মাস আগে সৌদি আরব নারীদের গাড়ি চালানোর ওপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়, যার সমালোচনা করেছে রক্ষণশীলরা।

তবে ২০১৮ সালের জুন থেকে বাস্তবায়ন হতে যাওয়া এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন অধিকারকর্মীরা। সৌদি আরব বিশ্বের একমাত্র দেশ, যেখানে নারীদের গাড়ি চালানোর অনুমতি নেই। চলতি বছরের জুনে যুবরাজ নিযুক্ত হন এমবিএস। এর পর থেকে বিভিন্ন খাতে তিনি সংস্কারের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

তবে সমালোচকদের ভাষ্য হলো, বিদ্যমান সমাজকাঠামো নিয়ে প্রশ্নকারী এবং মানবাধিকারকর্মীদের ওপর দমন-পীড়ন অব্যাহত রেখেছে সৌদি আরব।
সিটিজিনিউজ / এসএ

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.