তলপেটের মেদ কমাতে প্রয়োজন হাঁটা!

0
12

স্বাস্থ্য ডেস্ক  ::  তলপেটের মেদ বিপাকীয়ভাবে সক্রিয় এবং ত্বকের নিচের মেদের চেয়ে দ্রুত ঝরে সে মেদ। তলপেটের মেদ হলো আন্তরযন্ত্রের মেদ, পেটের ভেতরে যন্ত্রগুলোর চারপাশে ঘিরে থাকে এই মেদ। এই মেদ বিপজ্জনক। এই মেদ হারানো সহজ।

কখন মেদ হয়েছে, বলা যাবে? নারীদের ক্ষেত্রে কোমরের বেড় ৩৫ ইঞ্চির বেশি হলে তলপেটের মেদ বলা যাবে। আর পুরুষের কোমরের বেড় ৪০ ইঞ্চির বেশি হলে তলপেটে বেশ মেদ জমেছে বলা যাবে। এমন হলে ওজন কমাতে হবে শরীরের। তলপেটের মেদ বেশ সক্রিয়। এই মেদ থেকতে উৎসারিত হয় হরমোন এবং প্রদাহ উদ্দীপক বস্তু। এই মেদ ভেঙে দ্রুত তৈরি হয় মেদ অম্ল : রক্তস্রোত গিয়ে পৌঁছায় যকৃতে, পেশিতে।

চর্বি ও রক্তের জমাট টুকরো আসে রক্তে : হৃদরোগ, ডায়াবেটিস এসব রোগের সূচনা হয়। ক্ষীণদেহী ব্যক্তির কোনো ঝুঁকি নেই কে বলল? অনেক ক্ষীণদেহী লোকের দেহের পাকস্থলীর চারপাশে জমতে পারে মেদ। এই লুকানো মেদ পেটের ভেতর থাকলে বড় বিপদ।

এমনি বোঝা যাবে না তবে সিটি স্ক্যান, এম আর আই করলে ধরা পড়বে। তলপেটে মেদ ঝরানোর জন্য সুবর্ণ পথ হলো হাঁটা। দ্রুত হাঁটা। হেঁটে হেঁটে ঘামা। তাই তলপেটের মেদ কমাতে নিয়মিত হাঁটুন। হাঁটা মেদ ঝড়াতে বেশ কাজে দেবে।
সিটিজিনিউজ /এসএ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here