‘মন্ত্রী হলেই বিদেশে বাড়ি কেনেন রাজনীতিকরা’

0
6

নিউজ ডেস্ক:: ‘বর্তমানে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হলে ঢাকায় বাড়ি, এমপি হলে টাকার ছড়াছড়ি আর মন্ত্রী হলেই বিদেশে বাড়ি কেনেন দেশের রাজনীতিকরা’ এমন মন্তব্য করেছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।

শনিবার (৪ নভেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ কৃষক শ্রমিক পার্টি (কেএমপি) আয়োজিত শের-ই-বাংলা’ একে ফজলুল হকে’র ১৪৪তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এই মন্তব্য করেন তিনি।

সংগঠনের চেয়ারম্যান ফারহা নাজ হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শেরে বাংলা জাতীয় ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সদস্য একে ফাইয়াজুল হক রাজু, বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের চেয়ারম্যান ও সাবেক অতিরিক্ত সচিব মোহাম্মদ ইসমাইল এবং সংগঠনের নেতারা।

শেরে বাংলা একে ফজলুল হকের জীবন ও আদর্শ তুলে ধরে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী বলেন, ফজলুল হক ছিলেন দেশেপ্রেমিক নেতা, তিনি গণমানুষের মুক্তির জন্য আন্দোলন করেছেন। জমিদারদের হাত থেকে সাধারণ মানুষের ক্ষমতা প্রতিষ্ঠিত করেছেন। শয়নে-স্বপনে তিনি কেবল সাধারণ মানুষের কথা ভেবেছেন। ফলে সেই সময় সরকারের বড় বড় পদে থাকার পরও বাড়ি-গাড়ি’র মালিক হননি। বরং বন্ধুর দেওয়া বাড়িতে ছিলেন। এক কথায় তিনি ছিলেন একজন মহামানব ও দূরদর্শী নেতা।কিন্তু এখন আমাদের দেশের রাজনীতিকরা মাইকের সামনে এসেই শুধু দেশপ্রেমের কথা বলেন, বাস্তব জীবনে তার উল্টো চিত্র।

তিনি বলেন, রাজনীতি করে সামান্য ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হলেই ঢাকায় বাড়ি কেনে। এমপি হলে টাকার ছড়াছড়ি আর মন্ত্রী হলেই বিদেশে বাড়ির মালিক হয়ে যান।

মন্ত্রী বলেন, শেরে বাংলার আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে বঙ্গবন্ধু রাজনীতি করেছেন। এখন আমাদের নেত্রী দেশ পরিচালনা করছেন। দেশের মানুষের ও অর্থনীতির মুক্তির জন্য কাজ করছেন । দেশ এগিয়ে যাচ্ছে।

সিটিজিনিউজ/মাসুদ শেখ

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here