চট্টগ্রামে শুরু আইটি মেলা, অংশ নিয়েছে ৫১টি স্টল

0
20

তথ্যপ্রযুক্তি (আইটি) এখন মানুষের নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যে পরিণত হয়ে গেছে মন্তব্য করে চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেছেন, ‘মানুষের মৌলিক প্রয়োজনীয় জিনিসেও যেন এটি ঢুকে গেছে।’

চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স ও সোসাইটি অব চিটাগং আইটি প্রফেশনালসের উদ্যোগে আয়োজিত তিন দিনব্যাপী আইটি মেলার উদ্বোধনী দিনে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

শনিবার (১১ নভেম্বর) ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের বঙ্গবন্ধু সম্মেলন কক্ষে এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সেন্টারের নিচ তলায় এই মেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান।

তিনি তার বক্তব্যে বলেন, আইটি মেলা চট্টগ্রামের জন্য যুগপোযোগী উদ্যোগ। দেশের রাজস্ব আয়ের বড় একটা অংশ চট্টগ্রাম থেকে যায়। তাই সরকার চট্টগ্রামকে অধিক গুরুত্ব দিচ্ছে। দেশের একমাত্র ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের অবস্থান চট্টগ্রামে-তা তারই প্রমাণ।বক্তব্য দিচ্ছেন বিভাগীয় কমিশনার
বক্তব্য দিচ্ছেন বিভাগীয় কমিশনার

বাংলাদেশ তথ্যপ্রযুক্তিতে এগিয়ে যাচ্ছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, এখন ঘরে বসে ই-কমার্সের মাধ্যমে সারাবিশ্বের সঙ্গে ব্যবসা করা যাচ্ছে। বাইরে গিয়ে যানজটে পড়তে হচ্ছে না। ঘরে বসেই অফিস করা যাচ্ছে।

বাংলাদেশ অনেকদূর এগিয়ে গেছে উল্লেখ করে বিভাগীয় কমিশনার আরও বলেন, এখন পেছনে যাবার কোনো পথ নেই। হাতে হাত রেখে সরকারের অগ্রযাত্রাকে এগিয়ে নিতে হবে আমাদের সবাইকে।

সভাপতির বক্তব্যে চট্টগ্রাম চেম্বারের সভাপতি মাহবুবুল আলম আরও বলেন, চট্টগ্রামে আইটি হাব হবে। এর অংশ হিসেবে এই আইটি মেলা।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন সোসাইটি অব চিটাগং আইটি প্রফেশনালসের সভাপতি আবদুল্লাহ ফরিদ।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে দক্ষিণ আফ্রিকার অনারারি কনসাল সোলায়মান আলম শেঠ, জাপানের অনারারি কনসাল নুরুল ইসলাম, চট্টগাম চেম্বার অব কমার্সের পরিচালক এমএ মোতালেব, অহিদ সিরাজ চৌধুরী (স্বপন) প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মেলা চলবে ১৩ নভেম্বর (সোমবার) পর্যন্ত। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত

দেশের স্বনামধন্য ২৬ প্রতিষ্ঠানের ৫১টি স্টল মেলায় অংশ নিয়েছে। এছাড়া ভারতের দিল্লির একটি নামকরা প্রতিষ্ঠান মেলায় অংশ নিয়েছে। আর এ মেলার গোল্ড স্পন্সর হিসেবে নকিয়া ও স্মার্ট টেকনোলজির (বিডি) স্টল থাকছে। টেকনোলজি পার্টনার হিসেবে থাকছে লিংক থ্রি, সাইবার পার্টনার সফোজ ও ফুড পার্টনার হিসেবে থাকছে বনফুল।

প্রণোদনামূলক কর্মকাণ্ডের জন্য চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট) ও বাংলাদেশ কম্পিউটার সোসাইটিসহ (বিসিএস) তিনটি স্টল বিশেষভাবে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি মেলার অন্যতম আকর্ষণ হিসেবে রয়েছে শিশুসহ সবার জন্য বিশেষ সাইবার জোন।

সিটিজিনিউজ/এইচএম

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here