জাতির কল্যাণে চাই কর্মক্ষেত্রে সততা- নাছির উদ্দীন

0 21

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

চট্টগ্রাম পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট এর ৫১তম ব্যাচ’র ছাত্র-ছাত্রীদের বিদায়, শিক্ষা ভবন ও শহীদ মিনার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মেয়র

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, আত্মকেন্দ্রিকতা ও স্বার্থপরতা পরিহার করে সাধারণ মানুষের দুঃখ কষ্টকে আমলে এনে কর্মক্ষেত্রে সততার সাথে দায়িত্ব পালন করে দেশ ও জাতির কল্যানে নিবেদিত হতে হবে।

প্রকৃত মানুষ কখনো মানুষের অকল্যান করতে পারে না। শিক্ষা অর্জন করে আলোকিত মানুষ হওয়ার পেঁছনে এদেশের জনগনের সম্পৃক্ততা রয়েছে। রাষ্ট্র ও জনগনের টাকায় অর্জিত জ্ঞাণকে দেশের স্বার্থে কাজে লাগাতে হবে।

মেয়র শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, যে মা-বাবা তাঁর সন্তানদের সু শিক্ষিত ও মানুষের মত মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার জন্য সবকিছু বিসর্জন দেন সেই মা-বাবার প্রতি সন্তানদের সর্বোচ্চ সম্মান-মর্যাদা অটুট রেখে আমরণ তাদেরকে সেবা দিতে হবে।

তিনি বলেন, শিক্ষার্থী সকলকে মাতা-পিতার সিদ্ধান্ত ও শিক্ষকদের পরামর্শ মেনে নীতি ও আদর্শবান আলোকিত নাগরিক হিসেবে গড়ে উঠতে হবে। মেয়র বলেন, মা বিশ্বস্থ ও নিঃস্বার্থ ব্যক্তি, নিঃসংকোচে মা এর প্রতি সর্বোচ্চ আনুগত্য দেখাতে হবে।

১৪ নভেম্বর  মঙ্গলবার চট্টগ্রাম পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট এর ৫১তম ব্যাচ’র ছাত্র-ছাত্রীদের বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষনে মেয়র এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে সভাপত্বি করেন অত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নুরুল কবির। এতে প্রধান আলোচক ছিলেন বঙ্গবন্ধু প্রজন্মলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ এম মহিউদ্দিন।

বিশেষ অতিথি ছিলেন অত্র পলিটেকনিক ইনষ্টিটিউট শিক্ষক সমিতির সভাপতি তাপস কান্তি দে। চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের বিজ্ঞাণ ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মো. আশরাফুল ইসলাম, উপ তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মোরশেদুল আলম মোরশেদ, চট্টগ্রাম পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ছাত্রলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান মিজান, ছাত্র সংসদের ভিপি বেলাল উদ্দিন বেলাল, ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি হাসান মাসুদ, ছাত্র সংসদের জিএস আরিফ হাসান, ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক শরিফুল ইসলাম মিয়াজি, আনিসুল ইসলাম সাজিদ, ৫১ ব্যাচের বিদায়ী ছাত্র রেদোয়ান হোসেন।

অনুষ্ঠান পরিচালনায় ছিলেন ছাত্র সংসদের এজিএস ইমন সরকার ও শম্পা ইসলাম।

অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট এর শিক্ষক মন্ডলী, ছাত্রলীগ ও ছাত্রসংসদের নেতৃবৃন্দ এবং চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র ধর্মগ্রন্থ থেকে পাঠ,প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিদের ফুল ও ক্রেষ্ট প্রদান এবং আলোচনা সভা শেষে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের অর্থায়নে ১ কোটি ৬০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে বাস্তবায়িত ৪ তলা ভবন বিশিষ্ট পাওয়ার ওয়ার্কশপ এবং ৮ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা ব্যয়ে নির্মিত শহীদ মিনারের ফলক উম্মোচন করে উদ্বোধন করেন। পরে মনোজ্ঞ র‌্যালি ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করা হয়।

সিটিজিনিউজ/এইচএম 

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.