পটিয়ায় মহাপ্রসাদ আস্বাদন অনুষ্ঠান সম্পন্ন

0

পটিয়া সুজানগর শ্রীশ্রী বাসুদেব বাড়ীতে ২২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে ধর্মসভা, শ্রীশ্রী নাম সংকীর্তন, মহাপ্রসাদ আস্বাদন অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে।

মহতি এ ধর্ম সভা মহোৎসব কমিটির সভাপতি মাষ্টার অজিত কুমার রুদ্র‘র সভাপতিত্বে ও সুজানগর সার্বজনীন বাসুদেব বাড়ি পরিচালনা পরিষদের সহ সভাপতি অধ্যাপক ডা: রুপম রুদ্র’র সঞ্চালনায় এতে উদ্বোধক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জলদিস্থ শ্রী শ্রী অদ্বৈতানন্দ ঋষিমঠ ও মিশনের শ্রীমৎ স্বামী প্রবোধানন্দ পুরী মহরাজ।

সমস্বরে গীতা পাঠ করেন গীতা সংঘ কমিটির সদস্য ও ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দ।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন মহোৎসব উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক শ্রী অঞ্জন রুদ্র।

প্রধান অতিথি ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক মনোনীত চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ এর পরিচালক ও রুদ্র পাল যুব উন্নয়ন সমবায় সমিতির চেয়ারম্যান শ্রী প্রদীপ পাল, এফসিএ, এফসিএমএ। প্রধান আলোচক ছিলেন পাচুরিয়া তপোবান আশ্রমের অধ্যক্ষ শ্রীমৎ স্বামী রবীশ্বরানন্দ পূরী মহরাজ, মূখ্য আলোচক ছিলেন বিশিষ্ট ধর্মতত্ববিধ, সমাজচিন্তাবিধ অধ্যাপক শ্রী স্বদেশ চক্রবর্তী, সম্মানিত অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন যথাক্রমে সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব খলিলুর রহমান বাবু, রুদ্রপাল যুব উন্নয়ন সমবায় সমিতির মহাসচিব শ্রী মানিক রুদ্র, উত্তরভুর্ষি শ্রী শ্রী অদ্বৈতানন্দ ঋষিমঠ ও মিশনের ব্রহ্মচারী শ্রীমৎ দীপানন্দ চৈতন্য, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ চট্টগ্রাম উত্তর জেলার তথ্য বিষয়ক সম্পাদক প্রকৌশলী বাবু পাল, বাংলাদেশ রুদ্রপাল সমিতি চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার সাবেক সভাপতি শ্রী মন্টু বিকাশ রুদ্র, রুদ্রপাল যুব উন্নয়ন সমবায় সমিতির উপদেষ্টা পূর্ণেন্দু বিকাশ রুদ্র, ফতেপুর গীতা সংঘের সভাপতি প্রকৌশলী সাধন বিকাশ রুদ্র, রুদ্রপাল যুব উন্নয়ন সমবায় সমিতির সমাজকল্যাণ সচিব শ্রী সমীর রুদ্র, দপ্তর সচিব শ্রী মিলন রুদ্র, অগ্রণী ব্যাংকের ম্যানেজার ও রুদ্রপাল যুব উন্নয়ন সমবায় সমিতির অর্থ সচিব শ্রী অমল রুদ্র রিংকু, সহ অর্থ সচিব ভবতোষ রুদ্র,১৬নং কচুয়া ইউনিয়ন পরিষদের মহিলা মেম্বার সেলিনা আক্তার। সভায় আরো বক্তব্য রাখেন বাসুদেব বাড়ি পরিচালনা পরিষদের সভাপতি শ্রী দয়াল রুদ্র, সাধারণ সম্পাদক তপন রুদ্র, বিশিষ্ট সকমাজসেবক শিমুল রুদ্র ও ব্যাংক কর্মকর্তা উৎপল রুদ্র প্রমুখ।

রাত ১০টায় মহানামযজ্ঞের শুভ অধিবাস এতে পৌরহিত্য করেন শ্রীমৎ প্রিয়ব্রত গোস্বামী, পরিচালনা পুষ্পল রুদ্র ও বৈষ্ণব সম্প্রদায়।

২১শে নভেম্বর রোজ মঙ্গলবার আহোরাত্র শ্রীশ্রী তারকব্রহ্ম পরিবেশনায় ছিলেন চট্টগ্রাম ঐতিহ্যবাহী কীর্তনীয়া দল গোপাল বাড়ী, জগদানন্দ সম্প্রদায়, শ্রীরাম সংঘ ও মহানাথ সম্প্রদায় এবং দুপুর ১টা মহাপ্রসাদ আস্বাদন, রাত ১২টায় লীলা কীর্তন প্রদর্শন, ২২শে নভেম্বর রোজ বুধবার উষালগ্নে নগর কীর্তন পরিক্রমা শ্রীশ্রী মহানাময়াতের পূর্ণাহুতির মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়।

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন শিল্পী পাপড়ী রুদ্র, সুমী রুদ্র, আন্না রুদ্র, মণীষা রুদ্র, মণিকা রুদ্র প্রমুখ। সভায় প্রধান অতিথি বলেন যুব সমাজকে সংঘ শক্তির মাধ্যমে গীতার আদর্শে গড়ে তুলতে পারলে সমাজের অনাচার, অবক্ষয় মুছে গিয়ে দেশ উন্নতির পথে ধাবিত হবে।

সিটিজিনিউজ/এইচএম

Share.

Leave A Reply