ইয়াবা ব্যবসায় জড়িয়ে পড়ছে পরিবহণ ব্যবসায়ীরা

0
18

ট্রাকে তল্লাশি চালিয়ে ১২ হাজার ইয়াবাসহ একজনকে আটকের পর ওই ট্রাকের মালিক ইয়াবা ব্যবসায় জড়িত বলে তথ্য পেয়েছে পুলিশ। এর আগে নগর গোয়েন্দা পুলিশও জানিয়েছিল, একশ্রেণীর পরিবহণ ব্যবসায়ী ইয়াবা ব্যবসায় জড়িয়ে পড়ছেন।

বায়েজিদ বোস্তামি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ মঈন উদ্দীন জানিয়েছেন, শুক্রবার (০১ ডিসেম্বর) রাতে নগরীর আমিন জুট মিলের উত্তর গেইটে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে একটি ট্রাকে তল্লাশি চালানো হয়। সেখান থেকে ১২ হাজার ইয়াবা উদ্ধারের পর চালক মো.আলমকে (৩৩) আটক করা হয়েছে।

মো.আলম কক্সবাজার জেলার টেকনাফ উপজেলার জাদিমুড়া গ্রামের জব্বার মল্লের ছেলে। আলম টেকনাফ থেকে ইয়াবাগুলো নিয়ে ট্রাকে করে অক্সিজেন এলাকার দিকে যাচ্ছিলেন বলে জানিয়েছেন বায়েজিদ বোস্তামি থানার এএসআই নাছের আহম্মদ।

পুলিশ পরিদর্শক মঈন  বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আলম জানিয়েছে, ট্রাকের মালিক ইউনূস মূলত ইয়াবা ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। ইউনূসই আলমকে দিয়ে ইয়াবাগুলো চট্টগ্রাম নগরীতে পাঠিয়েছেন। আমরা পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখছি।

এএসআই নাছের বাদি হয়ে ইয়াবা উদ্ধারের ঘটনায় মামলা দায়ের করেছেন।

এর আগে গত ১৯ নভেম্বর নগরীর বাকলিয়া থানার শাহ আমানত সেতু সংলগ্ন চাক্তাই মেরিনার্স রোডের মুখে একটি কাভার্ড ভ্যানে তল্লাশি চালিয়ে এক লাখ ২০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করে নগর গোয়েন্দা পুলিশ। এসময় তিনজনকে আটক করা হয়।

নগর গোয়েন্দা পুলিশের উপ-কমিশনার (ডিসি-বন্দর) মো.শহীদুল্লাহ জানিয়েছিলেন, কাভার্ড ভ্যানের মালিক ইয়াবা ব্যবসায় জড়িত বলে তাদের কাছে তথ্য আছে।

শহীদুল্লাহ বলেন, আমাদের কাছে সাম্প্রতিক যে তথ্য আছে সেটা হচ্ছে ইয়াবা ব্যবসায়ীরা এখন পরিবহন খাতে বিনিয়োগ করছেন। পণ্য পরিবহন তাদের মূল উদ্দেশ্য নয়। পণ্যের আড়ালে ইয়াবা পাচারই হচ্ছে তাদের উদ্দেশ্য। ইয়াবা ব্যবসায়ীদের কারণে প্রথাগত পরিবহন ব্যবসায়ী যারা আছেন তারাও বিপাকে পড়ছেন।

সিটিজিনিউজ/এইচএম 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here