বাংলাদেশ ফুটবলের ভরসা এখন অ্যান্ড্রু ওর্ড

0

ক্রিড়া ডেস্ক  ::  বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ও সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের আগে বেশ কয়েকটি প্রীতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। এমনকি এই দুই টুর্নামেন্টকে সামনে রেখে বিপিএলের পরপরই করা হবে দীর্ঘ মেয়াদী ক্যাম্প। যেখানে প্রাধান্য পাবেন তরুণ ফুটবলার’রা।

এমনটাই জানিয়েছেন ন্যাশনাল টিমস কমিটির চেয়ারম্যান কাজী নাবিল। এদিকে জাতীয় দল তৈরি’র লক্ষ্যে ইতোমধ্যে কাজ শুরু করে দিয়েছেন কোচ অ্যান্ড্রু ওর্ড। ছুটি কাটিয়ে দেশে ফিরেই সভাপতির জরুরী তলবে বাফুফে ভবনে বাংলাদেশ জাতীয় দলের কোচ অ্যান্ড্রু ওর্ড।

ন্যাশনাল টিমস কমিটির চেয়ারম্যান, ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ও স্ট্র্যাটেজিক ডিরেক্টর পল স্মলি’কে নিয়ে, কাজী সালাউদ্দীনের কক্ষেই চললো প্রায় ঘণ্টার দুয়েকের রুদ্ধদ্বার বৈঠক। যেখানে আলোচনার প্রধান বিষয় জাতীয় ফুটবল দল। গেলো বছর ভুটান ট্র্যাজিডির পর নিষ্ক্রিয় বাংলাদেশ দলকে, করা হচ্ছে আবারো সক্রিয়।

ন্যাশনাল টিমস কমিটি প্রীতি ম্যাচ চেয়ারম্যান কাজী নাবিল বলেন, ‘আগামী বছরে কয়েকটি ফিফা ফ্রেন্ডলি, এশিয়ান গেমসে অনূর্ধ্ব ২০ টিম এবং সবশেষে সেপ্টেম্বরে সাফ গেমসকে যেন সাফল্যমন্ডিত করতে পারি এবং এর জন্য দীর্ঘমেয়াদী ট্রেনিং প্রোগ্রাম হাতে নেয়া যায় এবং সবগুলো বিষয় যেন ঠিকভাবে হয় সেটা নিয়েই আমরা আলোচনা করছিলাম।’

১ বছরের চুক্তিতে ২০১৬ সালের জুনে অস্ট্রেলিয়ান কোচ অ্যান্ড্রু ওর্ডকে মোটা দাগের বেতনে নিয়োগ দেয় বাফুফে। তবে চুক্তির মেয়াদ বাড়লেও জাতীয় দলের ডাগ আউটে এখনও দাঁড়ানো হয় নি ৩৮ বছর বয়সী এই অস্ট্রেলিয়ানের। এবার হয়তো-বা সে আক্ষেপ মিটতে যাচ্ছে তার।

জাতীয় দলের গড়ার লক্ষে ইতোমধ্যে খোলোয়াড় বাছাই-ও শুরু করেছেন ওর্ড। বাংলাদেশ জাতীয় দলের কোচ অ্যান্ড্রু ওর্ড বলেন, ‘দেখুন ফিটনেস ও স্কিলকে প্রাধান্য দিয়ে ৩০ থেকে ৩৫ জনের একটি লিস্ট করে ফেলেছি আমি।

সেখানে আরো কিছু নাম যোগ হবে। ভালো ব্যাপার হচ্ছে স্কোয়াডের অধিকাংশ খেলোয়াড়’রাই বিপিএলে খেলার মধ্যে রয়েছে। তবে সেখানে ভিন্ন কোচের অধীনে ভিন্ন পরিকল্পনা তারা খেলছে। সেটা সমস্যা নয়।

আমি শুধু টুর্নামেন্টটি শেষ হওয়ার জন্য অপেক্ষা করছি।’ তবে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ও সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ম্যাচগুলি কবে নাগাদ তা হবে কিংবা প্রতিপক্ষ কারা হচ্ছে সেটা জানা যাবে ন্যাশনাল টিমস কমিটির পরবর্তী সভায়।

সিটিজিনিউজ/আইএস

Share.

Leave A Reply