বোয়ালখালীতে সম্মাননা পেল চার জয়িতা

0 18

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

বোয়ালখালী প্রতিনিধি: শনিবার বোয়ালখালী উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে রোকেয়া দিবস ও নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ পালন উপলক্ষ্যে উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে নারী উন্নয়নে অবদানের জন্য উপজেলার পাঁচ নারীর হাতে জয়িতা সম্মাননা তুলে দেয়া হয়। তবে একজন তা বর্জন করেছেন।

উপজেলার আত্মসামাজিক উন্নয়নে বিশেষ অবদান রাখায় মনোয়ারা বেগম, সফল জননী হিসেবে সুফিয়া বেগম, নারী নির্যাতনের বিভিষিকা মুছে ঘুরে দাঁড়ানো নারী রোকেয়া বেগম, অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখায় বেবী আকতার ও শিক্ষা ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখায় সাংবাদিক আয়েশা ফারজানাকে জয়িতা সম্মাননার জন্য মনোনীত করা হয়। তবে বৈষম্য মূলক আচরণ, প্রকৃত সংগ্রামী নির্যাতিত নারীদের এ সম্মান দেয়া হয়নি দাবি করে তা বর্জন করেছেন সাংবাদিক কাজী আয়েশা ফারজানা।

এ উপলক্ষে আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আফিয়া আকতার। আফাজুর রহমানের সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আতাউল হক, ভাইস চেয়ারম্যান ওবাইদুল হক হক্কানী, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহিদা আকতার শেফু, অধ্যাপক পূর্বা দাশ, থানার উপ-পরিদর্শক (তদন্ত) মাহবুবুল আলম আকন্দ, শিক্ষা কর্মকর্তা সদানন্দ পাল, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা এসএম জিন্নাত সুলতানা, দুদক প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি নুরুল আলম।

আয়োজিত সভায় বক্তারা বলেন, ‘বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেন ছিলেন উপমহাদেশের নারী জাগরণের অগ্রদূত। তাঁর জন্যই নারী সমাজ আজ ঘুরে দাঁড়িয়েছে। বর্তমান সরকার নারীদের অধিকার ফিরিয়ে দিতে ও নিজেদের পায়ে দাঁড়ানোর সুযোগ সৃষ্টি করেছে।’

তিনি জানান, নারী অধিকার বাস্তবায়নে বর্তমান সরকার মহৎ উদ্যোগ নিয়েছে। এ উদ্যোগকে নষ্ট করার প্রয়াসে সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানেও বৈষম্যমূলক আচরণ করেছেন ও নীতিমালা অনুযায়ী প্রকৃত সংগ্রামীদের এ সম্মান দেয়া হয়নি। তাই এ সম্মাননা বর্জন করেছেন বলে জানান তিনি।

সিটিজিনিউজ/এইচএম

 

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.