সংকটাপন্ন রমা চৌধুরী

0 23

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

কোমরের হাড় ভেঙ্গে গুরুতর অসুস্থ হয়ে আবারও হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ‘একাত্তরের জননী’ খ্যাত লেখিকা রমা চৌধুরী। তাঁর অবস্থা দ্রুত সংকটাপন্ন হয়ে পড়ছে। জরুরিভাবে অস্ত্রোপচার করতে না পারলে তাঁকে বাঁচানো সম্ভব হবে না বলে মনে করছেন চিকিৎসকেরা।

কিন্তু অর্থের অভাবে অসুস্থ রমা চৌধুরীর চিকিৎসাই সংকটের মুখে পড়েছে বলে জানিয়েছেন তাঁর বইয়ের প্রকাশক আলাউদ্দিন খোকন।

‘দিদি (রমা চৌধুরী) জীবনে কোনদিন কারো কাছ থেকে কোন সাহায্য নেননি। কিন্তু এখন তিনি জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে এসে দাঁড়িয়েছেন। তিনি বাঁচার আকুতি জানাচ্ছেন বারবার। উনার চিকিৎসার জন্য যে অর্থের প্রয়োজন তা আমাদের কাছে নেই। আমরা দিদির সকল শুভানুধ্যায়ী এবং দেশের মানুষকে এগিয়ে আসার অনুরোধ করছি। ’ বলেন খোকন

সাতটি জটিল রোগে আক্রান্ত রমা চৌধুরীকে গত ১১ ডিসেম্বর ডায়াবেটিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গত রোববার (২৪ ডিসেম্বর) হাসপাতাল থেকে তাঁকে বাসায় নেওয়া হয়। ওই রাতেই তিনি পড়ে গিয়ে কোমরের ডানদিকে গুরুতর আঘাত পান। ভেঙে যায় ‍হাড়।

খোকন  জানান, রাতেই রমা চৌধুরীকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। কিন্তু সেখানে সিট না পাওয়ায় পরবর্তীতে তাকে মেডিকেল সেন্টার ক্লিনিকে নেওয়া হয়।

রমা চৌধুরী বর্তমানে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের সহযোগী অধ্যাপক সামিরুল ইসলামের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা নিচ্ছেন। সামিরুল ইসলাম বলেন, রমা চৌধুরীর হাড় ভেঙে গেছে। অস্ত্রোপচার করতে হবে।

হাসপাতালে রমা চৌধুরীর পাশে আছেন আলাউদ্দিন খোকন এবং তাঁর সন্তান জহর চৌধুরী। জহর চৌধুরী  বলেন, আমার মা এই দেশের জন্য অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছেন। মাকে বাঁচাতে আমি সবার কাছে সহযোগিতা চাই। আমার মাকে বাঁচান।

মুক্তিযুদ্ধের ঝাপটায় সম্ভ্রম, ঘরবাড়ি, নিজের সৃষ্ট সাহিত্য, সর্বোপরি দুই সন্তান হারানো এই বিপর্যস্ত জীবনসংগ্রামী তিন দশকেরও বেশি সময় ধরে খালি পায়ে চট্টগ্রামের রাস্তায় রাস্তায় ঘুরে বই বিক্রি করেছেন। নিজের লেখা বই ফেরি করে বিক্রি করা এই লেখিকার নিজের ভাষায় তিনি ‘একাত্তরের জননী’।

সিটিজিনিউজ/এইচএম 

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.