‘জাতীয় প্রয়োজনে রেলের স্বার্থ সংরক্ষণ অপরিহার্য’

0 35

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে আজ রোববার সকাল ১১ টার দিকে বাংলাদেশ রেলওয়ে শ্রমিক কর্মচারী সংগ্রাম পরিষদ কর্তৃক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

বাংলাদেশ রেলওয়ে লোকবল নিয়োগ প্রক্রিয়ায় অনিয়ম, কোটি কোটি টাকার নিয়োগ বাণিজ্য , নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁস , রেলওয়ের জমি পানির দামে কেনা-বেচার মতো দুর্নীতির বিরুদ্ধে এ প্রতিবাদ সভার আয়োজন করা হয়।

এতে উপস্থিত ছিলেন রেল সংগ্রাম কেন্দ্রীয় সমন্বয়কারী জনাব মোখলেছুর রহমান , কেন্দ্রীয় আহবায়ক যথাক্রমে জনাব আব্দুস ছবুর , রফিক চৌধুরী , কাজী আনোয়ারুল হক, মাহবুবুর রহমান পিন্টু , মোঃ ফারুক আলম এবং সংগঠনের কেন্দ্রিয় সদস্য সচিব জনাব মোহাম্মদ আলী।

সংগঠনের কেন্দ্রীয় সদস্য সচিব জনাব মোহাম্মদ অালী সাংবাদিকদের বলেন ‘ রেলওয়ে ব্যবস্থাকে সংকোচিত করে বাংলাদেশ রেলওয়েকে গুরুত্বহীন করার য়ড়যন্ত্র পাকাপাকি হলে এর বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার নিমিত্তে ১৯৮৯ সালে রেলওয়ের প্রবীণ নেতা মরহুম এমএস হকের নেতৃত্বে বাংলাদেশ রেলওয়ে শ্রমিক কর্মচারী সংগ্রাম পরিষদ গঠন করা হয় ।

এ সংগঠনের মূল লক্ষ্য হলো রেলওয়েতে লোকবল নিয়োগ বাণিজ্যে অনিয়মের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের প্রেক্ষিতে সরকারী সুস্পষ্ট দিক নির্দেশনার ভিত্তিতে ধারাবাহিকভাবে নিয়োগ প্রদানের প্রক্রিয়া সচল রাখা।’

তিনি আরো বলেন ‘ প্রকৃত যোগ্যতম প্রার্থীকে বিবেচনার সুযোগ দেওয়া হয়না , তদুপরি রেলপোষ্যরাও চাকুরী পায় না ‘ বারবার অনিয়মের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সত্ত্বেও কোন আলোচনারই প্রয়োজনবোধ করা হয় না ।’ পুনারায় সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করতে আমরা বাধ্য হয়েছি।’

রেল সংগ্রাম পরিষদের কেন্দ্রীয় সমন্বয়কারী জনাব মোখলেছুর রহমান বলেন ‘ পানির দামে রেলওয়ের জায়গা কেনা-বেচার মতো অনিয়ম , লোকবল নিয়োগে লিখিত পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁস , প্রশ্ন ফাঁসে জড়িতদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করা , প্রধানমন্ত্রীর রেলওয়ের উন্নয়ণ পরিকল্পনা বাস্তবায়নে অর্থ লুটপাটকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে রেলশ্রমিক কর্মচারী সংগ্রাম পরিষদের আজকের এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন।

জাতীয় প্রয়োজনে রেলের স্বার্থ সংরক্ষণ অপরিহার্য , রেলওয়ে এবং রেলওয়ে কর্মীর স্বার্থ সংরক্ষণের সুযোগগুলো বাস্তবায়নের লক্ষ্যে দ্বিতীয় মন্ত্রণালয় প্রতিষ্ঠা করা হলেও যথাযথ তদারকির অভাবে অনিয়মের আখড়ার সৃষ্টি হচ্ছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর রেলওয়ে খাতের উন্নয়ণে ব্যাঘাত সৃষ্টিকারী এবং অনিয়মের বেড়াজাল হতে রেলওয়ে খাতকে মুক্ত করার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি রেলশ্রমিক কর্মচারী সংগ্রাম পরিষদের আহবান।’

বেলা ১২ টার দিকে প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়ণকে স্বাগতম জানানোর মধ্যে দিয়ে এ সম্মেলনের পরিসমাপ্তি ঘটে।

সিটিজিনিউজ / এসএ

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.