অনেকে মনে করেছিলেন কোহলির ‘বউভাগ্য’!

0

ক্রীড়া ডেস্ক  ::    বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরে বিরাট কোহলির বিয়ে নিয়ে মেতেছিলো ভারতীয় গণমাধ্যম। গেল মাসে বলিউড তারকা আনুশকা শর্মাকে বিয়ের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাদের নিয়ে আলোচনা ঝড় বয়ে গেছে।

বিয়ের পর প্রথমবারের মতো মাঠে নেমেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। নিউল্যান্ড টেস্টের শুরুটা অবশ্য কোহলির পক্ষেই ছিলো। মাত্র ১৩ রানে প্রোটিয়াদের ৩ উইকেট ফেলে দিয়ে চালকের আসনে বসে ভারত। তখন হয়তো অনেকেই কোহলির ‘বউভাগ্য’ ভালো বলেই মনে করছিলেন।

তবে দিনে শেষে ভারতীয় শিবিরে সেই আনন্দটা আর থাকেনি। দক্ষিণ আফ্রিকার ২৮৬ রানের জবাবে ব্যাটে নেমে ৩ উইকেট খুইয়ে মাত্র ২৮ রানে প্রথম দিন শেষ করেছে সফরকারীরা। আর অধিনায়ক কোহলির ব্যাট থেকে এসেছে মাত্র ৫ রান। এখানেই যতো বিপত্তি!

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ নিয়ে টিটকারি, টিপ্পনী কম হচ্ছে না।

বিং এমএসডিয়ান নামে এক টুইটার অ্যাকাউন্টে পোস্ট করা হয়েছে, ‘ধারণা: কোহলি সব কন্ডিশনেই রান করতে পারেন… বাস্তবতা: ব্যাটিং পিচে সে ২০০ রানের বেশি করে আর ঘাসের মাঠে ২০ রানের কম। তারপরেও কিছু লোক তাকে স্মিথের (স্টিভেন স্মিথ) সঙ্গে তুলনা করে।’

খুররাম নামে আরেক টুইটার ব্যবহারকারী লিখেছেন, ‘বিরাট কোহলি মাত্র ৫ রানে আউট হয়ে গেছেন। এটা তখনই ঘটবে যখন আপনি হানিমুনের দিনে কোন কর্মীকে অফিস করতে জোর করবেন।’

রাজা বাবু নামে অপর এক অ্যাকাউন্টে লিখা হয়েছে, ‘কোচ: দক্ষিণ আফ্রিকায় কেনো তুমি এতোটা স্ট্রাগল করছো? কোহলি: কিংবদন্তী মহাত্মা গান্ধিও এখানে স্ট্রাগল করেছে, সেখানে আমি কে?’

অভিষেক নামে একজন বলেছেন, ‘কমপক্ষে ১০-১২ ইনিংস লাগবে বিরাট কোহলির হানিমুনের ঘোর কাটতে এবং স্বাভাবিক খেলায় ফিরতে।’বিকাশ লিখেছেন, ‘বিয়ের পর প্রথম ইনিংসেই ফেল।’

বিয়ের পর জাতীয় দলের সঙ্গে প্রথম বিদেশ সফরে নববধূকে সঙ্গে নিয়ে গেছেন বিরাট। নিউল্যান্ডে প্রথম দিনের খেলায় গ্যালারিতে উপস্থিত থেকে ভারতীয় ক্রিকেটারদের সমর্থন জানাতে দেখা গেছে আনুশকাকে।
সিটিজিনিউজ / এসএ

Share.

Leave A Reply