ওষুধ প্রশাসনকে আরো কার্যকর করার উদ্যোগ : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

0 42

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

নিউজ ডেস্ক   ::    স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, ‘ওষুধে ভেজাল রোধে সরকার কঠোর অবস্থানে আছে।’ বিশ্ববাজারে টিকে থাকতে ওষুধের মান ঠিক রাখার তাগিদ দিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

এ ছাড়া ওষুধ প্রশাসনকে আরো কার্যকর করার উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি। আজ সোমবার বিকেলে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর আয়োজিত আলোচনা সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ফার্মাসিউটিক্যাল পণ্যকে ২০১৮ সালের ‘প্রডাক্ট অব দ্য ইয়ার’ ঘোষণা করেছেন। সভায় জানানো হয়, ওষুধ উৎপাদনের সক্ষমতা বাড়িয়ে, এ খাতকে আরো এগিয়ে নিতে চান সংশ্লিষ্টরা।

সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘যারা একটি ভেজাল ওষুধ কারখানা করে, ফ্যাক্টরি করে; দিনের পর দিন তাঁরা আপনাদের সুনাম নষ্ট করার চেষ্টা করেছে। তাঁদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিয়েছি। কোয়ালিটির সাথে কম্প্রমাইজ করবেন না।

আপনাদের কাজের জন্য যদি ১০টা ফ্যাক্টরি বন্ধ হয়ে যায়, হয়ে যাক। খারাপ ফ্যাক্টরি বন্ধ হয়ে গেলে আপনাদেরই লাভ হবে। ওষুধ প্রশাসনের লাভ হবে। তারা আপনাদের সদস্য হতে পারবে না। আপনাদের সঙ্গে থাকতে পারবে না।

আপনাদের দৃঢ় প্রতিজ্ঞ থাকতে হবে।’ দেশের সাধারণ মানুষ যাতে কমদামে মানসম্পন্ন ওষুধ পায়, সে বিষয়টি খেয়াল রাখার তাগিদ দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

সভায় ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘বাংলাদেশের ফার্মাসিউটিক্যালস প্রডাক্টের রপ্তানির সব পটেনশিয়ালকে কাজে লাগিয়ে, রপ্তানি কয়েকগুণ বৃদ্ধি করার টার্গেট নিয়ে আমাদের এক সঙ্গে কাজ করতে হবে।’

সভায় আরো বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি খাত উন্নয়ন বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান এবং বাংলাদেশ ওষুধ শিল্প সমিতির সভাপতি নাজমুল হাসান।
সিটিজিনিউজ/এসএ

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.