জাতীয় গ্রিডে বিদ্যুত পাবে `ট্যালেন্ট আইল্যান্ড’ সন্দ্বীপবাসী

0
23

মূল ভূখন্ড থেকে বিচ্ছিন্ন `ট্যালেন্ট আইল্যান্ড’ হিসেবে পরিচিত সন্দ্বীপ উপজেলা লক্ষাধিক মানুষ জাতীয় গ্রিডে বিদ্যুতায়নের আওতায় আসতে যাচ্ছে। সন্দ্বীপ ও সীতাকুণ্ড অংশে ওভার হেডলাইন স্থাপনের কাজ শেষ হলেই জুন মাস থেকে  জাতীয় গ্রিডে বিদ্যুতায়নের আওতায় আসবে। বঙ্গোপসাগরের সন্দীপ চ্যানেলের ১৬ কিলোমিটার অংশ জুড়ে ১৮ ফুট গভীরে সাবমেরিন ক্যাবল বসানোর কাজ শেষ হয়েছে।বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (পিডিবি)  দেশে প্রথমবারের মত  এই সাবমেরিন ক্যাবল বসানোর কাজ করছে।

পিডিবির তত্বাবধানে ১৪৪ কোটি টাকা ব্যয়ে সাবমেরিন ক্যাবল বসানোর কাজ করছে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান জেডটিটি।

পিডিবি জানিয়েছে, ২০১৪ সালের ১০ সেপ্টেম্বর সাবমেরিন ক্যাবল প্রকল্পটি একনেকে অনুমোদন দেয়া হয়। পরে প্রকল্পের জন্য আন্তর্জাতিক দরপত্র আহ্বান করা হয়। দরপত্রের মাধ্যমে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান জেডটিটি সাবমেরিন ক্যাবল স্থাপনের কাজটি পায়।

পিডিবির প্রধান নির্বাহী (দক্ষিণ) প্রকৌশলী প্রবীর কুমার সেন  জানান, চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে সন্দীপ চ্যানেলের ১৬ কিলোমিটার অংশ জুড়ে ১৮ ফুট গভীরে সাবমেরিন ক্যাবল বসানোর কাজ শেষ হয়েছে। বর্তমানে সীতাকুণ্ডের ১০ কিলোমিটার ও সন্দ্বীপের ১৬ কিলোমিটার অংশে হেডলাইন স্থাপনের কাজ চলছে।

সাবমেরিন ক্যাবল স্থাপন প্রকল্পের সহকারী পরিচালক ও পিডিবির প্রকৌশলী ইকবাল করিম জানান, সাবমেরিন ক্যাবল বসানোর কাজ শেষ হয়েছে। জাহাজের মাধ্যমে সাগরের তলদেশে ১৬ কিলোমিটার অংশ জুড়ে ৩৩ হাজার ভোল্টের ২টি ক্যাবল বসানো হয়েছে। ক্যাবলে ৩টি কোর ও একটি অপটিকেল ফাইভার রয়েছে। এছাড়াও একটি সাবস্টেশন ও ২টি ট্রান্সফরমার বসানো হবে। বর্তমানে সন্দ্বীপ ও সীতাকুণ্ড অংশে ওভার হেডলাইন স্থাপনের কাজ চলছে।

পুরো প্রকল্পের কাজ ইতোমধ্যে ৬০ ভাগ শেষ হয়েছে জানিয়ে প্রবীর কুমার সেন বলেন, জুন মাসের মধ্যে ক্যাবল স্থাপনের কাজ শেষে সন্দ্বীপে জাতীয় গ্রিডে ১০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ পাবে। বর্তমানে প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত ১ মেগাওয়াট করে বিদ্যুৎ পাচ্ছে সন্দ্বীপবাসী। এ প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে প্রথম দফায় সন্দ্বীপের ১০ হাজার গ্রাহক বিদ্যুতের আওতায় আসবে।

সন্দ্বীপ আসনের সংসদ সদস্য মাহফুজুর রহমান মিতা  বলেন, ‘চ্যানেলে সাবমেরিন ক্যাবল বসানোর শেষ হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর প্রচেষ্টায় সন্দ্বীপের লক্ষাধিক মানুষ বিদ্যুতের আওতায় আসছে। সোনার হরিণ হাতে পাচ্ছে সন্দ্বীপবাসী। বিদ্যুতের আওতায় আসলেই সন্দ্বীপে শিল্পাঞ্চলসহ নানা ব্যবসা বাণিজ্য শুরু হবে। যুবকদের কর্মসংস্থান বাড়তে থাকবে।

সিটিজিনিউজ/এইচএম 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here