১৭৯ কেন্দ্রে চলছে এসএসসি পরীক্ষা

0
20

বাংলা প্রথম পত্রের মধ্য দিয়ে বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টা থেকে চট্টগ্রামসহ সারাদেশে শুরু হয়েছে মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমানের পরীক্ষা। এবছর চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের অধীনে ১ হাজার ২৩টি স্কুলের ১ লাখ ৩৫ হাজার ২২১ জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে।

পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পাদনে শিক্ষাবোর্ড কর্তৃপক্ষ ১০টি বিশেষ টিম গঠন করেছে। এছাড়াও পরীক্ষা কেন্দ্রের সার্বক্ষনিক দায়িত্বে ৫০টি সাধারণ ভিজিল্যান্স টিমের সদস্যরা পালন করছেন।

শিক্ষাবোর্ড সূত্রে জানা যায়, এসএসসিতে এবছর ১৭৯ কেন্দ্রে ১ লাখ ৩৫ হাজার ২২১ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে। এরমধ্যে ৬২ হাজার ৭৩৭ জন ছাত্র ও ৭২ হাজার ৪৮৪ জন ছাত্রী।

মহানগরবাদে চট্টগ্রাম জেলার ১০৬টি কেন্দ্রে অংশ নিচ্ছে ৬৯৩টি স্কুলের ৯৪ হাজার ৭০৩ জন, মহানগরের ৩২টি কেন্দ্রে ১৮৩টি স্কুলের ৩২ হাজার ১৯৬ জন, কক্সবাজার জেলার ২৫টি কেন্দ্রে ১৩৫টি স্কুলের ১৮ হাজার ৭৪৭ জন, রাঙামাটি জেলার ১৯টি কেন্দ্রে ৮০টি স্কুলের ৮ হাজার ৫৬৮ জন, খাগড়াছড়ি জেলার ১৮টি কেন্দ্রের ৭৬টি স্কুলের ৯ হাজার ৬২১ জন এবং বান্দরবান জেলার ১১টি কেন্দ্রে ৩৯টি স্কুলের ৩ হাজার ৫৮২ জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করছে।

মোট পরীক্ষার্থীর মধ্যে বিজ্ঞান বিভাগ থেকে অংশ নিচ্ছে ৩০ হাজার ৭৫৫ জন শিক্ষার্থী। ব্যবসা শিক্ষা বিভাগ থেকে ৬১ হাজার ৭৭৯ জন ও মানবিক বিভাগ থেকে ৪২ হাজার ৬৮৭ জন শিক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে।

গতবছর চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের অধীনে ১৭১টি কেন্দ্রে ১ হাজার ১০টি স্কুলের ১ লাখ ১৮ হাজার ২৯ জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিল। এরমধ্যে ৫৫ হাজার ৪৯৪ জন ছাত্র ও ৬২ হাজার ৫৩৫ জন ছাত্রী।

চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের উপ-পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. তাওয়ারিক আলম  জানান, মহানগরীসহ চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, রাঙামাটি, বান্দরবান ও খাগড়াছড়ি জেলার ১৭৯টি কেন্দ্রে এসএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ইতিমধ্যে প্রত্যেক কেন্দ্রের যাবতীয় সকল কাগজপত্র পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। শিক্ষাবোর্ডের অধীনে এবছর ১ হাজার ২৩টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ১ লাখ ৩৫ হাজার ২২১ জন শিক্ষার্থী এ পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। এরমধ্যে নিয়মিত পরীক্ষার্থী ১ লাখ ১৮ হাজার ৮৮ জন, অনিয়মিত ১৭ হাজার ১১৯ জন ও ১৪ জন মানোন্নয়নে অংশ নেবে।

পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পাদনে ১০টি বিশেষ টিম ও ৫০টি সাধারণ ভিজিল্যান্স টিমের সদস্যরা কাজ করছেন। পরীক্ষা কেন্দ্রের যেকোন সমস্যা সমাধানে বোর্ড কর্তৃপক্ষ তৎপর রয়েছে বলেও জানান তিনি।

সিটিজিনিউজ/এইচএম

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here