শ্লীলতাহানীতে বাধা দেওয়ায় ছয়জনকে কুপিয়ে জখম

0 31

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

কক্সবাজার সদর উপজেলার ঝিলংজা ইউনিয়নে দশম শ্রেণির এক ছাত্রীর শ্লীলতাহানীতে বাধা দেওয়ায় ছয়জনকে কুপিয়ে জখম করার ঘটনায় ১৩ জনের নামে রামু থানায় মামলা দায়ের করেছে ছাত্রীর ভাই মো. শহীদুল্লাহ।

শনিবার রাতে ঘটনার মূলহোতা রামু উপজেলার দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়নের ছাদের পাড়ার ফকির শমসুরের ছেলে আবছার কামাল (২৮) কে প্রধান আসামী করে আটজনের নাম উল্লেখ করে মামলাটি করা হয়। মামলায় আরও অজ্ঞাত পাঁচজনকে আসামী করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্র জানায়, এক কিশোরীকে শ্লীলতাহানীর চেষ্টাতে বাধা দেওয়ায়  বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) রাতে ও বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) রাতে দু’দফা সেই কিশোরীর পরিবারের ওপর হামলা চালায় আবছার কামাল ও তার সহযোগীরা।এতে ওই স্কুল ছাত্রীর বাবা, দুই ভাই, ভাবী এবং দুই প্রতিবেশী আহত হন। তারা বর্তমানে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এ বিষয়ে রামু থানার ওসি লিয়াকত আলী সিকদার ‍বলেন, আসামীদের ধরতে পুলিশ কয়েকদফা অভিযান পরিচালনা করেছে। কিন্তু তারা পলাতক থাকায় গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি।

এদিকে শনিবার বিকেলে ওই ঘটনায় আহতদের দেখতে কক্সবাজার সদর হাসপাতাল যান কক্সবাজার সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা নোমান হোসেন প্রিন্স।

এসময় তিনি এ ঘটনার নিন্দা জানিয়ে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলেন।

এর আগে সকালে এই ঘটনার প্রতিবাদে ও দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে সদর উপজেলার ঝিলংজা ইউনিয়নের কক্সবাজার সরকারি কলেজের সামনে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা ইলিয়াছ মিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা।

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.