শ্রীদেবির আকালমৃত্যু , মরদেহ আসছে ভারতে

0

বিনোদন ডেস্ক  ::    শনিবার রাতে দুবাইতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে অকালমৃত্যু ঘটে বলিউড অভিনেত্রী শ্রীদেবী। ৫৪ বছর বয়সে তাঁর এই চলে যাওয়ায় শোক নেমে এসেছে বলিউড ও ভক্তদের মধ্যে।

তাই প্রিয় অভিনেত্রীকে শেষ শ্রদ্ধা জানানোর জন্য দ্রুতই তাঁর মরদেহ ভারতে আনার প্রক্রিয়া চলছে। ডিএনএ ইন্ডিয়ার খবরে প্রকাশ, আজ দুপুর নাগাদ ভারতে আসতে পারে শ্রীদেবীর মরদেহ।

মুম্বাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কর্মকর্তারা জানান, কার্গো অথবা ব্যক্তিগত জেট বিমানের মাধ্যমে কার্গো বিমানবন্দর টার্মিনালে ভারতীয় সময় দুপুর ১২ থেকে ২টার মধ্যে আনা হবে শ্রীদেবীর মরদেহ।

একই সঙ্গে দেশে ফিরবেন বনি কাপুর ও শ্রীদেবীর ছোট মেয়ে খুশি কাপুর। শ্রীদেবী পরিবারের ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র জানায়, ‘শ্রীদেবী বড় কোনো অসুখে ভুগছিলেন না। তাই তাঁর আচমকা মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ সবাই। তবে তাঁর হৃদরোগ ছিল।

দুবাইতে তাঁর হৃদরোগ বড় আকার ধারণ করে। সেখানেই তিনি মৃত্যুবরণ করেন। এটা কেউই আশা করেননি।’

১৯৭৫ সালে ১৩ বছর বয়সে ‘জুলি’ সিনেমার মধ্য দিয়ে ইন্ডাস্ট্রিতে প্রবেশ শ্রীদেবীর। এরপর চাঁদনি, নাগিনা, সাদমা, জানবাজ, কারমা, মিস্টার ইন্ডিয়াসহ অসংখ্য সিনেমায় তিনি অভিনয় করেন।

নায়িকা হিসেবে গড়ে তোলেন এক অনন্য কীর্তি। ১৯৮৩ সালে মুক্তি পাওয়া ‘সাদমা’ বলিউডে তাঁকে স্বতন্ত্র স্থান দেয়। সমালোচকদের মতে, শ্রীদেবী অভিনীত ‘লামহে’ ভারতীয় সিনেমার ১০০ বছরের ইতিহাসে সেরা ১০টি রোমান্টিক ছবির মধ্যে অন্যতম।

শ্রীদেবীর প্রকৃত নাম শ্রী আম্মা ইয়ানগার আয়াপান হলেও চলচ্চিত্র দুনিয়ায় শ্রীদেবী নামেই পরিচিতি পান তিনি। যদিও তাঁর অভিনয় জীবনের শুরুটা হয়েছিল শিশুশিল্পী হিসেবে।

তামিল, তেলেগু, মালায়ালাম ছাড়াও বলিউডের বিভিন্ন ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। ২০১৭ সালে মুক্তি পায় শ্রীদেবী অভিনীত সর্বশেষ চলচ্চিত্র ‘মম’। ২০১৩ সালে পদ্মশ্রী পদকে ভূষিত হন এই অভিনেত্রী।
সিটিজিনিউজ/এসএ

Share.

Leave A Reply