‘কবরস্থ ব্যক্তিও সালামের জবাব দেন’

0
53
ইছালে সাওয়াব মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন আহলে সুন্নত আহছানুল উলুম জামেয়া কামিল মাদ্রাসার মুহাদ্দিস শাহজাদায়ে ইমামে আহলে সুন্নত শাহজাদা আলহাজ্ব কাযী মুহাম্মদ আবুল এরফান হাশেমী (মু.জি.আ) ।--ছবি আলমগীর মুন্না
ইছালে সাওয়াব মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন আহলে সুন্নত আহছানুল উলুম জামেয়া কামিল মাদ্রাসার মুহাদ্দিস শাহজাদায়ে ইমামে আহলে সুন্নত শাহজাদা আলহাজ্ব কাযী মুহাম্মদ আবুল এরফান হাশেমী (মু.জি.আ) ।–ছবি আলমগীর মুন্না

হাকিম মোল্লা,সীতাকুণ্ড থেকে ফিরে: যিনি সালামের জবাব দিতে সক্ষম তাকেই সালাম দিতে হবে। আবার যিনি কবরস্থ হয়েছেন তাকেও সালাম দেওয়া যাবে। অর্থাৎ কবরে শায়িত ব্যক্তিও সালামের জবাব দিয়ে থাকেন। যা পবিত্র কোরআনে স্পষ্টভাবেই উল্লেখ রয়েছে। আল্লাহ্ ও রাসুলের উপর বিশ্বাস আনা মুমিনদের পক্ষেই সম্ভব এ পথ অনুসরণ করা।

শতবছরের পুরোনো ভাটিয়ারী পূর্বহাসনাবাদ পাহাড় সংলগ্ন কবরবাসীদের উদ্দেশ্যে ইছালে সাওয়াব মাহফিলে আহলে সুন্নত আহছানুল উলুম জামেয়া কামিল মাদ্রাসার মুহাদ্দিস শাহজাদায়ে ইমামে আহলে সুন্নত শাহজাদা আলহাজ্ব কাযী মুহাম্মদ আবুল এরফান হাশেমী (মু:জি:আ:) প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

২৫ ফেব্রুয়ারি (রোববার) গাউছিয়া হাশেমী কমিটি বাংলাদেশ ভাটিয়ারী পূর্বহাসনাবাদ শাখার উদ্যোগে ও এলাকাবাসীর সার্বিক সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত ২০তম ঐতিহাসিক এই মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন আলা হযরত, মুর্শিদে বরহক শাইখুল হাদীস,ওস্তাজুল ওলামা,হযরত আল্লামা কাযী মুহাম্মদ নুরুল ইসলাম হাশেমী সাহেব কেবলা (মু:জি:আ:)।

মাহফিলে প্রধান বক্তা ছিলেন, আল্লামা ইদ্রিছ আল কাদেরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন,ভাটিয়ারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো. নাজিম উদ্দীন। মাহফিলে আরও তশরীফ আনেন মাওলানা জাহেদুল ইসলাম আল কাদেরী, মাওলানা ফরিদুল আলম, মাওলানা বশির আহমদ বাহাদুর, মাওলানা লোকমান হাকিম।

মাহফিল পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন, আবুল কালাম (আবু),মোহাম্মদ কাশেম, আলমগীর মুন্না, ইমরান হোসাইন, তারেক,মতিউর রহমান, ফারুক, আইয়ুব আলী, রুবেল, নুরুল আলম, ইউসুফ, নুর নবী প্রমুখ।

সিটিজিনিউজ/এইচএম 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here