নির্মাণ সামগ্রীর দাম বৃদ্ধিতে রিহ্যাবের ফ্ল্যাট হস্তান্তরে বিলম্ব

0

হঠাৎ করে নির্মাণ সামগ্রীর দাম বৃদ্ধির কারণে বেশির ভাগ ক্রেতারা সময়মতো ফ্ল্যাট বুঝে পাবেন না বলে আশঙ্কা জানিয়েছে আবাসন ব্যবসায়ীদের সংগঠন রিয়েল এস্টেট অ্যান্ড হাউজিং সোসাইটি অব বাংলাদেশ (রিহ্যাব)। মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এসব কথা জানান রিহ্যাবের নেতারা।

এক সপ্তাহের ব্যবধানে হঠাৎ করে টন প্রতি ৬০ গ্রেডের রডের দাম ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা বেড়ে গেছে। বছরে বেড়েছে ২৩ শতাংশ। নির্মাণ সামগ্রীর দাম বৃদ্ধির কারণে ফ্ল্যাটের দাম ২০ থেকে ২৫ শতাংশ বাড়তে পারে বলে সংগঠনটির পক্ষ থেকে বলা হয়।

রিহ্যাবের সভাপতি আলমগীর শামসুল আলামিন বলেন, ‘যৌক্তিক কোনো কারণ ছাড়া রড, সিমেন্ট ও নির্মাণ সামগ্রীর দাম বাড়ায় ক্রেতাদের ওপর চাপ পড়বে এবং এতে আবাসন খাত হুমকিতে পড়বে।’

শামসুল আলামিন বলেন, ‘মূল্যস্ফিতীর সঙ্গে যদি জিনিসপত্রের দাম বাড়ে সেটাকে গ্রহণ করা যায়। কিন্তু এটা তো মূল্যস্ফীতির চেয়ে অনেক বেশি দাম বাড়ছে। যেটাকে আমরা কোনোভাবেই গ্রহণ করতে পারছি না।’

রিহ্যাবের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন বলেন, ‘মাঝামাঝি সময়ে এসে যে ভবন নির্মাণ সামগ্রীর দামটা বৃদ্ধি পেল অনেক ব্যবসায়ী যথাসময়ে দেখা যাবে তাদের ফ্ল্যাট হস্তান্তর করতে পারবে না।’ ক্রেতাদের জন্য সরকারের পক্ষ থেকে সিঙ্গেল ডিজিট সুদে একটি ২০ হাজার কোটি টাকার তহবিল করার দাবি জানায় রিহ্যাব।
সিটিজিনিউজ/এসএ

Share.

Leave A Reply