আশ্রয় পেয়ে তারা নেমেছে ইয়াবা ব্যবসায়

0 13

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নিপীড়ন শুরু হলে প্রায় দুই মাস আগে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা ঢলের সঙ্গে তারাও প্রবেশ করেছিল বাংলাদেশে। আর এ দেশে আশ্রয় পেয়েই তারা নেমে পড়েছে ইয়াবা ব্যবসায়। তারা ঈমান হোসেন (২৬) ও মো. রিজওয়ান (১৮)।

এই দুই রোহিঙ্গাকে সোমবার (১৩ নভেম্বর) দুপুরে উখিয়ার বালুখালী-১ রোহিঙ্গা অস্থায়ী ক্যাম্পের পাশের গ্রাম জুমাড়ছড়া-৩ ক্যাম্প থেকে ৪০পিস ইয়াবাসহ আটক করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। পরে দুজনকেই ছয় মাসের কারাদণ্ড দেয় আদালত।

এ অভিযান পরিচালনা করেন ক্যাম্পের ইনচার্জ কক্সবাজার জেলা প্রশাসনে সংযুক্ত ফেনী জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সোহেল রানা।

সূত্র জানায়, বাংলাদেশী এক বাড়িতে ইয়াবা এনে বিক্রি করছেন এমন তথ্যের ভিত্তিতে এই অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় ক্যাম্প থেকে ঈমান হোসেন ও মো. রিজওয়ানকে ৪০ পিস ইয়াবাসহ হাতেনাতে ধরে ফেলা হয়। পরে তল্লাশি চালিয়ে তাদের সঙ্গে থাকা সিগারেটের প্যাকেটের ভেতর সংরক্ষিত ৪০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়।

পরবর্তীতে তাদের উখিয়ার সহকারী কমিশনার (ভূমি) একরামুল সিদ্দিকের সামনে আনা হয়। এসময় দুই রোহিঙ্গা মাদক বহন ও বিক্রয়ের বিষয়টি স্বীকার করে। পরে তাদের দুজনকে ছয় মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়। দুজনের মিয়ানমারের বাড়িই মংডু থানা এলাকার।

জানতে চাইলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সোহেল রানা বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের হাত ধরে এই অঞ্চলে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ছে মাদক। বড় ব্যবসায়ীরা রোহিঙ্গাদের ব্যবসায় ব্যবহার করছে। এটি নিয়ন্ত্রণে তৎপরতা বৃদ্ধি করা প্রয়োজন। আমরা আমাদের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।’

সিটিজিনিউজ/এইচএম 

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.