‘হঠাৎ গাড়ি বন্ধের সিন্ধান্তে জনগণের দুর্ভোগ’

0 16

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

নগরীতে গণপরিবহনে পুলিশি হয়রানি বন্ধ, গাড়ির ট্যু নিয়ে পুলিশ কমিশনারের জারিকৃত নির্দেশনা বাস্তবায়ন ও নগরীর পরিবহন সেক্টরের অরাজকতা বন্ধের দাবি জানিয়েছে চট্টগ্রাম জেলা সড়ক পরিবহন মালিক গ্রুপ।

মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) সকালে নগরীর আন্দরকিল্লায় সংগঠনের প্রধান কার্যালয়ে মালিক গ্রুপের সভাপতি মনজুরুল আলম মঞ্জুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক সভায় এসব দাবি জানানো হয়।

সভায় জানানো হয়, মেট্রোপলিটন এলাকায় গণপরিবহনে পুলিশি হয়রানি অসহনীয় পর্যায়ে পৌঁছেছে। এতে পরিবহন মালিকরা আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন। গাড়ি ট্যু করা নিয়ে সিএমপি কমিশনারের নির্দেশনার সুষ্ঠু বাস্তবায়নের দাবি জানানো হয়।

জেলা সড়ক পরিবহন মালিক গ্রুপের মহাসচিব আবুল কালাম আজাদ বলেন, মঙ্গলবার আমরা বাধা উপেক্ষা করে নগরীতে গাড়ি চালিয়েছি। এতে কিছু গাড়িতে হামলাও হয়েছে। তাই পরিবহন সেক্টরে নৈরাজ্য সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে হবে।

‘গাড়ি ট্যু করা নিয়ে সিএমপি কমিশনারের নির্দেশনা বাস্তবায়ন করে নগরীর পরিবহন সেক্টরে শৃংখলা প্রতিষ্ঠিত করতে হবে।’

মনজুরুল আলম বলেন, যেসব গাড়ি বিকল হয়নি সেগুলো ট্যু না করা এবং ডকুমেন্ট থাকা গাড়ি অপরাধ করলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়ার কথা হয়েছিল। কিন্তু দায়িত্বপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তারা এ নির্দেশনা না মেনে হয়রানি করছে। এতে ক্ষতিগ্রস্ত গাড়ির মালিকরা অতীষ্ট হয়ে গাড়ি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কিন্তু হঠাৎ করে গাড়ি বন্ধ করলে জনগণের দুর্ভোগ বাড়বে তাই আমরা বিষয়টি পুলিশ কমিশনারকে জানিয়েছি।জনগণের দুর্ভোগের কথা পরিবহণ মালিকরা ভাবলেও পুলিশ তার ভাবে না।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে সংগঠনের সহ-সভাপতি মাহবুবুল হক মিয়া, অতিরিক্ত মহাসচিব গোলাম রসুল বাবুল, সহ-সাধারণ সম্পাদক জাফর উদ্দিন চৌধুরী, শহীদুল ইসলাম সমু, কলিম উল্লাহ কলি, নুরুল হক, সিরাজ দৌল্লাহ নিপু, বদিউল আলম বাদল, রিটন মহাজন, টিটু তালুকদার, সাহিদ নাঈম সুমন, মোহাম্মদ এনায়েত, মোহাম্মদ ইকবাল, মোহাম্মদ মুছা, মোহাম্মদ আবদুল করিম, বিপ্লব চৌধুরী, মোহাম্মদ শাহজাহান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সিটিজিনিউজ/এইচএম 

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.