সীতাকুণ্ডে হবে আরেকটি বন্দর -বন্দর চেয়ারম্যান

0 61

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

ব্যাংকিং চ্যানেল চালুর লক্ষ্যে বাংলাদেশে শিগগির রাশিয়ান ব্যাংক স্থাপন করা হবে বলে জানিয়েছেন রাশিয়ান ফেডারেশনের রাষ্ট্রদূত আলেকজান্ডার আই ইগ্নাটভ।

বুধবার (১৩ ডিসেম্বর) দুপুরে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের বঙ্গবন্ধু কনফারেন্স হলে চট্টগ্রাম চেম্বার নেতাদের সঙ্গে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় একথা জানান ইগ্নাটভ।

রাশিয়া বাংলাদেশকে অর্থনৈতিকভাবে সাহায্য করতে আগ্রহী উল্লেখ করে তিনি বলেন, বর্তমানে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে দুই সরকার একযোগে কাজ করছে। প্রায় ১১ বিলিয়ন ডলার রাশিয়ান বিনিয়োগে পরমানু বিদ্যুৎকেন্দ্র তারই উদাহরণ। তবে সম্ভাবনার সদ্ব্যবহার করতে হলে দু’দেশের প্রাইভেট সেক্টরকেও এক সাথে কাজ করতে হবে।

বাণিজ্য সম্প্রসারণে কার্গোসহ এয়ার কানেক্টিভিটি ও সরাসরি সমুদ্র পথে যোগাযোগ স্থাপনের উপর গুরুত্বারোপ করেন রাশিয়ান ফেডারেশনের রাষ্ট্রদূত।

সভায় চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, রাশিয়া বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে অন্যতম সহযোগী দেশ। বর্তমানে উভয় দেশের মধ্যে প্রায় ১ দশমিক ৫ বিলিয়ন ডলারের বাণিজ্য সংগঠিত হয়েছে।

তিনি বলেন, চট্টগ্রামে অপার বাণিজ্যিক সম্ভাবনা রয়েছে কিন্তু দ্বিপাক্ষিকভাবে সরাসরি কোন ব্যাংকিং চ্যানেল নেই। ফলে তৃতীয় দেশের মাধ্যমে বাণিজ্য পরিচালনা করতে হয়। এক্ষেত্রে মাহবুবুল আলম রুশ রাষ্ট্রদূতকে পদক্ষেপ গ্রহণের অনুরোধ জানান।

চট্টগ্রাম বন্দর চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল এম. খালেদ ইকবাল বলেন, বর্তমান সরকার ব্যবসা-বাণিজ্যে ব্যয় ও সময় সাশ্রয়ে কাজ করছে। শিগগির সীতাকুণ্ডে আরেকটি বন্দর নির্মাণের সমীক্ষা চালানো হবে। শিপ বিল্ডিং ইন্ডাস্ট্রিতে রাশিয়ান সহযোগিতা করতে পারে।

চেম্বারের সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. নুরুন নেওয়াজ সেলিম বলেন, বাংলাদেশের তৈররি পোশাক শিল্পের জন্য রাশিয়া অত্যন্ত সম্ভাবনাময় বাজার। তাই বাজার সম্প্রসারণে রাশিয়ায় শুল্কমুক্ত প্রবেশ সুবিধা জরুরি।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে চেম্বারের সাবেক সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার আলী আহমদ, চট্টগ্রামস্থ ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার অনিন্দ ব্যানার্জী, জাপানের অনারারী কনসাল জেনারেল মো. নুরুল ইসলাম, ফিলিপাইনের অনারারী কনসাল এম এ আউয়াল, দৈনিক পূর্বকোণ’র পরিচালনা সম্পাদক জসিম উদ্দিন চৌধুরী, কাস্টম কমিশনার ড. এ কে এম নুরুজ্জামান, চেম্বার পরিচালক অঞ্জন শেখর দাশ, সাবেক পরিচালক মাহফুজুল
হক শাহ, বিএসআরএম’র এমডি আমীর আলী হুসেইন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।
এসময় অন্যান্যের মধ্যে রুশ অ্যাক্টিং কনসাল জেনারেল ভি জাকারভ, চেম্বার পরিচালক এ কে এম আক্তার হোসেন, কামাল মোস্তফা চৌধুরী, জহিরুল ইসলাম চৌধুরী (আলমগীর), মো. অহীদ সিরাজ চৌধুরী (স্বপন), মাহবুবুল হক চৌধুরী (বাবর), সরওয়ার হাসান জামিল, মুজিবুর রহমান, মো. আবদুল মান্নান সোহেল, দক্ষিণ আফ্রিকার অনারারী কনসাল মো. সোলায়মান আলম শেঠ, এইচআরসি’র সিনিয়র পরিচালক কাজী রুকুনউদ্দীন আহমেদ, ইপিবি’র পরিচালক কংকন চাকমা, লুব-রেফ’র পরিচালক সালাহ্উদ্দিন ইউসুফ, স্থপতি আশিক ইমরান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সিটিজিনিউজ/এইচএম 

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.