মহিউদ্দিন চৌধুরীর নাগরিক শোকসভার কমিটি গঠন

0 165

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

চট্টলবীর খ্যাত সাবেক মেয়র, মুক্তিযোদ্ধা এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর নাগরিক শোকসভা আয়োজনের লক্ষ্যে প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেনকে আহ্বায়ক ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরীকে সদস্যসচিব করে ৫০১ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এ উপলক্ষে প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের জিইসি ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন পেশাজীবী নেতা ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ হারুন, রাজনীতিবিদ ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, খোরশেদ আলম সুজন, বিএফইউজের সহ-সভাপতি শহীদুল আলম, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শুকলাল দাশ, সাংবাদিক মোয়াজ্জেমুল হক, হেলাল উদ্দিন চৌধুরী, শিল্পী আহমেদ নেওয়াজ, জাসদ কেন্দ্রীয় নেতা ইন্দুনন্দন দত্ত, আবু বক্কর সিদ্দিক, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ মহানগর কমান্ডার মোজাফ্ফর আহমদ, ডা. আ ম ম মিনহাজুর রহমান, রাজনীতিক শফিক আদনান, শফিকুল ইসলাম ফারুক, নজরুল ইসলাম বাহাদুর, ফিরোজ আহমেদ, ফরিদ মাহমুদ, পেশাজীবী খোরশেদুর রহমান, মোহাম্মদ ইউনুছ, দীপংকর চৌধুরী কাজল, বোরহানুল হাসান চৌধুরী সালেহীন, প্রদীপ খাস্তগীর, মুহাম্মদ ওসমান গনি প্রমুখ।

২০১৭ সালের ১৪ ডিসেম্বর দিনগত রাত তিনটার দিকে চট্টগ্রাম নগরীর মেহেদিবাগে বেসরকারি ম্যাক্স হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর।

প্রায় ১৭ বছর চট্টগ্রামের মেয়র ছিলেন মহিউদ্দিন। রাজনীতি ও সমাজসেবায় অসামান্য অবদানের জন্য চট্টগ্রামবাসী তাকে চট্টল বীর হিসেবে জানে।

এবিএম মহিউদ্দীন চৌধুরী ১৯৪৪ সালের ১ ডিসেম্বর চট্টগ্রাম জেলার রাউজান উপজেলার গহিরা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৯৪ খ্রিস্টাব্দে প্রথমবারের মতো চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র নির্বাচিত হন। ২০০৫ সালের মেয়র নির্বাচনে তিনি ক্ষমতাসীন বিএনপির একজন মন্ত্রীকে পরাজিত করে তৃতীয়বারের মতো চট্টগ্রামের মেয়র নির্বাচিত হন। মৃত্যুর আগপর্যন্ত তিনি চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছিলেন।

সিটিজিনিউজ/এইচএম

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.