থ্যালাসেমিয়া প্রতিরোধে প্রচারণার উদ্যোগ নেয়ার প্রতিশ্রুতি মেয়রের

0 53

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

থ্যালাসেমিয়া প্রতিরোধে সচেতনতামূলক লিফলেট মেয়রের হাতে তুলে দিচ্ছেন থ্যালাসেমিয়া প্রিভেনশন ক্যাম্পেইন নেতৃবৃন্দ

থ্যালাসেমিয়া প্রতিরোধে সচেতনতামূলক প্রচারণার উদ্যোগ নেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন চৌধুরী। থ্যালাসেমিয়া প্রিভেনশন ক্যাম্পেইন বাংলাদেশের একটি প্রতিনিধি দল গতকাল বুধবার সিটি কর্পোরেশনে মেয়র কার্যালয়ে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে গেলে তিনি এই প্রতিশ্রুতি দেন।

ক্যাম্পেইনের পক্ষ থেকে যেসব প্রস্তাব দেয়া হয়েছে সেগুলো হলো,

সিটি কর্পোরেশন আওতাধীন প্রতিটি স্কুল ও কলেজে ক্যাম্পেইনের অনুমতি প্রদান ও থ্যালাসেমিয়া স্ক্রিনিং (হিমোগ্লোবিন ইলেক্ট্রোফোরেসিস) করাতে উদ্বুদ্ধ করা, প্রতিটি হাসপাতালে ব্যানার, ফেস্টুন , লিফলেট ও স্টিকার লাগানোর অনুমতি প্রদান করা, প্রতিটি হাসপাতালে গর্ভবতী মহিলাদের প্রসূতিপূর্ব সেবার (এএনসি) সাথে থ্যালাসেমিয়া স্ক্রিনিং পরীক্ষা বাধ্যতামূলক করা, সিটি কর্পোরেশনের তত্ত্বাবধানে স্বল্প খরচে বা সম্পূর্ণ বিনামূল্যে হিমোগ্লোবিন ইলেক্ট্রোফোরেসিস টেস্টের ব্যবস্থা করা, সিটি কর্পোরেশনের বিজ্ঞাপনে থ্যালাসেমিয়া প্রতিরোধমূলক স্লোগান প্রচার করা, সিটি কর্পোরেশনের প্রত্যেক কর্মকর্তা-কর্মচারীদের স্ক্রিনিং টেস্ট করতে উদ্বুদ্ধ করা এবং নগরীর প্রতিটি ওয়ার্ডে প্রতিরোধমূলক কার্যক্রমের কার্যকরী দিক নির্দেশনা ও সহযোগিতা প্রদান করা।
থ্যালাসেমিয়া প্রিভেনশন ক্যাম্পেইন বাংলাদেশের প্রতিনিধি দলে ছিলেন বৈজ্ঞানিক উপদেষ্টা ডা. অধ্যাপক শাহেদ আহমেদ চৌধুরী, সংগঠনের পৃষ্ঠপোষক, বাংলাদেশ ফ্রেইট ফরওয়ার্ডার্স এসোসিয়েশন ও শিপিং এজেন্টস এসোসিয়েশনের পরিচালক খায়রুল আলম সুজন এবং কো-অর্ডিনেটর সূর্য দাস।

 

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.