আত্মহত্যার আগের দিন হাতিরঝিলে বেড়াতে যান মুুনিয়া-আনভীর

1098
 জালালউদ্দিন সাগর |  বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২৯, ২০২১ |  ৩:৩২ অপরাহ্ণ

আত্মহত্যার আগে পরপর দুইদিন দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত মুনিয়ার বাসাতেই ছিলেন বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীর। এর মধ্যে একদিন দু’জনে বেড়াতে গিয়েছিলেন হাতিরঝিলে। পারিবারিক একটি সূত্র বিষয়য়টি নিশ্চিত করেছে ।

মুনিয়ার চাচাত ভাই নাছির হোসেন মুঠোফোনে এই প্রতিবেদককে বলেন, মুনিয়া যেদিন মারা যান অথার্ৎ ২৪ এপ্রিল ও ২৫ এপ্রিল পরপর দুই দিন দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত আনভীর মুনিয়ার বাসাতেই ছিলেন। মৃত্যুর একদিন আগে মুনিয়াকে হাতিরঝিলে বেড়াতে নিয়ে যান আনভীর। তবে হঠাৎ মুনিয়াকে কেন হাতিরঝিলে নিয়ে গিয়েছিলেন আনভীর, বেড়াতে না অন্য কোনো উদ্দেশ্যে সেই প্রশ্ন এখন স্বজনদের?।

Advertisement

ইতোমধ্যে ভবনটি থেকে উদ্ধার করা সিসি ক্যামেরার ফুটেজ বিশ্লেষনে পুলিশও নিশ্চিত হয়েছে মুনিয়ার বাসায় নিয়মিত যাতায়াত করতেন সায়েম সাবহান আনভীরের।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গুলশান বিভাগের উপ-কমিশনার সুদীপ চন্দ্র চক্রবর্তী। তিনি বলেন, ‘ওই ফ্ল্যাটে তার (আনভীর) যাতায়াত ছিল, সে ব্যাপারে সংগৃহিত ফুটেজে প্রমাণ মিলেছে।’

গত সোমবার সন্ধ্যায় গুলশানের ১২০ নম্বর সড়কের ১৯ নম্বর বাসার একটি ফ্ল্যাটে থেকে কলেজ ছাত্রী মুনিয়ার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় মুনিয়ার বড় বোন নুসরাত জাহান তানিয়া বাদী হয়ে বসুন্ধরা গ্রুপের এমডি সায়েম সোবহান আনভীরের বিরুদ্ধে আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগ এনে একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়েছে, সায়েম সোবহানের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল মুনিয়ার। ১ লাখ টাকা ভাড়ার ওই ফ্ল্যাটে নিয়মিত যাতায়াত করতেন সায়েম সেবহান। তারা স্বামী—স্ত্রীর মতো ওখানে থাকতেন বলে জানান মুনিয়ার বড় বোন নুসরাত জাহান তানিয়া।

এসএম

Advertisement