পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচনপরবর্তী সহিংসতা, নিহত ১৪

64
 আন্তর্জাতিক ডেস্ক : |  মঙ্গলবার, মে ৪, ২০২১ |  ২:৫৩ অপরাহ্ণ

বিধানসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর দফায় দফায় সংঘর্ষ চলছে পুরো পশ্চিমবঙ্গজুড়েই। গত দুই দিনে সংঘর্ষে বিজেপি, তৃণমূল কংগ্রেস ও আইএসএফের মোট ১৪ কর্মীর মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করেছে দলগুলো।

পশ্চিমবঙ্গে ৮ দফা ভোট শেষে ২ মে ফল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচনে বিজেপিকে অনেকখানি পেছনে ফেলে ম্যাজিক ফিগারের অনেক বেশি আসন নিয়ে আবারও পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতায় এসেছে তৃণমূল কংগ্রেস। বিধানসভায় ২৯৪টি আসনের মধ্যে ২৯২টি আসনে নির্বাচন হয়েছে। সেখানে তৃণমূল কংগ্রেস পেয়েছে ২১৩টি, বিজেপি পেয়েছে ৭৭টি, বাম জোট ও অন্যান্যরা পেয়েছে একটি করে আসন।

Advertisement

এই ফল প্রকাশের পর থেকেই পশ্চিমবঙ্গজুড়ে চলছে দফায় দফায় সংঘর্ষ। বিজেপির দাবি, তাদের নয়জন কর্মী তৃণমূলের আক্রমণে মারা গেছে। অন্যদিকে তৃণমূলের দাবি, তাদের চারজন কর্মী মারা গেছেন বিজেপির আক্রমণে। আবার উত্তর চব্বিশ পরগনার দেগঙ্গায় নিহত নওশাদ সিদ্দিকীকে নিজেদের কর্মী বলে দাবি করছে ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্ট (আইএসএফ)।

এদিকে পরিস্থিতি নিজ চোখে পরিদর্শনে আজ মঙ্গলবার (৪ এপ্রিল) পশ্চিমবঙ্গে আসছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জগৎ প্রতাপ নাড্ডা। তিনি মোট দুইদিন সেখানে থাকবেন। এ সময় সংঘর্ষে নিহত বিজেপির কর্মীদের বাড়িতে গিয়ে সমবেদনা জানাবেন।

আর এরই মধ্যে রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিব, ডিরেক্টর জেনারেল অব পুলিশ এবং কলকাতার পুলিশ কমিশনারকে ডেকে রাজভবনে বৈঠক করেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখর। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি এবং নির্বাচনপরবর্তী সংঘর্ষে প্রাণহানির বিষয়ে রিপোর্টও চেয়েছেন।

এ অবস্থাতেই মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে আগামীকাল বুধবার শপথ নিচ্ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার (৩ এপ্রিল) দলীয় কার্যালয়ে বৈঠকের পর এই সিদ্ধান্ত জানানো হয়েছে। কালীঘাটে তৃণমূল কার্যালয়ে দলের কার্যনির্বাহী সদস্যদের সঙ্গে আলোচনায় বসেন মমতা। বৈঠকের পর সাংবাদিকদের বৈঠকের সিদ্ধান্ত জানান দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তিনি জানান, দলের নেত্রী নির্বাচিত হয়েছেন মমতাই। এ নিয়ে টানা তৃতীয়বারের মতো পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এমজে/

Advertisement